advertisement
আপনি পড়ছেন

হ্যান্ডসেট চুরি, অবৈধ আমদানি ও নকল হ্যান্ডসেট বিক্রি এবং মোবাইল ফোন কেন্দ্রিক অপরাধ কমাতে সিম কার্ডের মত হ্যান্ডসেটও নিবন্ধনের আওতায় আনার কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিটিআরসি)। বিবিসি বাংলা।

vat mobile

বিটিআরসি স্পেকট্রাম বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসিম পারভেজ এই খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, হ্যান্ডসেট নিবন্ধনের মাধ্যমে অবৈধভাবে আমদানি, চুরি ও নকল হ্যান্ডসেট প্রতিরোধ করা যাবে। গ্রাহকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যাবে। মোবাইল ফোনের হিসাব রাখা যাবে। সবশেষে সরকারি রাজস্বের ক্ষতি ঠেকানো সম্ভব হবে।

mobile sim

সাধারণত প্রত্যেকটি মোবাইল ফোনেই ১৫ ডিজিটেরএকটি স্বতন্ত্র আইএমইআই নম্বর থাকে। এই আইএমইআই নম্বর নিয়েই একটি বৈধ ফোনের ডাটাবেজ তৈরি করবে বিটিআরসি। এভাবে দেশের প্রতিটি সক্রিয় সেটকে নিবন্ধনের আওতায় আনা হবে।

প্রাথমিকভাবে হ্যান্ডসেট নিবন্ধনের জন্য গ্রাহককে কারও কাছে যেতে হবে না। নিবন্ধিত কোনো সিম ফোনসেটে সক্রিয় করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওই সেটটি সিম নিবন্ধনকারীর নামে নিবন্ধন হয়ে যাবে। এরপর ওই সেটে ওই নামে নিবন্ধিত সিম ছাড়া অন্য কোনো সিম চলবে না।

এছাড়া কারও কাছে একাধিক মোবাইল ফোন সেট থাকলে সেই সেটে যার নামে নিবন্ধিত সিম সক্রিয় করবেন, সেই নামেই সেটটি নিবন্ধিত হয়ে যাবে। এটি ছাড়া অন্য নামের কোন সিম ওই সেটে চলবে না।

ইতোমধ্যেই এ সংক্রান্ত ২৪ পাতার একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছে বিটিআরসি। প্রতিবেদনটি অনুমোদিত হলে প্রত্যেক অপারেটরকে তাদের নেটওয়ার্কের আওতায় থাকা প্রতিটি সক্রিয় হ্যান্ড-সেটের ডাটাবেজ তৈরির সময় বেঁধে দেয়া হবে।