advertisement
আপনি পড়ছেন

দেশে ইন্টারনেট সহজলভ্য হয়েছে। কমেছে ইন্টারনেটের দাম। তবে কিছু সীমাবন্ধতা থাকায় এখনও নিম্ন আয়ের মানুষের হাতের নাগালের বাহিরে রয়েছে ইন্টারনেট। তবে সরকার সবার জন্য ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে কাজ করছে। এবার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য সস্তায় ইন্টারনেট দেয়ার কথা ভাবছে সরকার। মাত্র ২৫০ টাকা দিয়ে ৫ এমবিপিএস আনলিমিটেড ইন্টারনেট দেবার উদ্যোগ নিছে সরকার। ঢাকার বস্তিগুলো থেকে শুরু হতে পারে এই সেবা।

internet for 250 tkপিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য সস্তায় ইন্টারনেট দেয়ার কথা ভাবছে সরকার

বুধবার এ সেবা বিষয়ক একটি ভার্চুয়াল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। সেখানে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এক্সানেট এর প্রধান নির্বাহী সাবির খসরু দেশে এ সেবা চালু করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনি এক্সানেটের মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ে এই ওয়্যারলস ব্র্যান্ডব্যান্ড সেবা চালুর পরিকল্পনা তুলে ধরেন মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের কাছে।

বৈঠক শেষে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন মন্ত্রী। তিনি লেখেন- ‘একটি নতুন সম্ভাবনার দুয়ারে দাঁড়িয়ে আছি। প্রস্তাবনা হলো কোন সিম কার্ড বা মোবাইল ফোনের নেটওযার্ক নয় আপনার স্মার্ট মোবাইল ফোন, কম্পিউটার, ট্যাব এর যে কোনটি দিয়ে মাসে মাত্র ২৫০ টাকা দিয়ে ৫ এমবিপিএস চলমান ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।’

mustafa jabbar bcsপিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য সস্তায় ইন্টারনেট দেয়ার কথা ভাবছে সরকার

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোস্তাফা জব্বার টুয়েন্টিফোর লাইভ নিউজপেপারকে বলেন, যে জনগোষ্ঠী ইন্টারনেটের ব্যয় বহন করতে পারে না তাদের জন্য যদি আমরা ২৫০ টাকায় এক মাস ৫ এমবিপিএস গতির ইন্টারনেট দিতে পারি, এটা কিন্তু আমাদের জন্য একটা বিপ্লব হবে।

এর বাস্তবায়ন সর্ম্পকে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, বুধবার একটি প্রতিষ্ঠান প্রোপোজ করেছে তারা একটা স্পেকট্রাম নিচ্ছে। স্পেকট্রাম তাদের অলরেডি আছে। এরা এটাকে আরো এক্সপান্ড করবে। ওরা স্পেকট্রাম ইউজ করে ৫ এমবিপিএস ইন্টারনেটের জন্য পুরো মাসে চার্জ নেবে ২৫০ টাকা। আশা করছি তারা খুব দ্রুত এই কাজ শুরু করবে। ঢাকার বস্তিবাসীদের দিয়ে এ সেবা চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।