আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 17 মিনিট আগে

ক্রাইস্টচার্চের আল নূর মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার দুঃস্মৃতি নিয়ে শনিবার রাতে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। অল্পের জন প্রাণে বেঁচে যাওয়া ক্রিকেটারদের চোখেমুখে আতঙ্কের ছাপটা স্পষ্ট। সেই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে যে সময় লাগবে সেটা ঢাকায় পা রাখার পর বলেছেন টাইগারদের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

bcb president nazmul hasan papon

কাল বিমানবন্দরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদুল্লাহ যখন কথা বলছিলেন বারবার গা শিউরে উঠছিল তার। কাঁপা কাঁপা সরে তিনি বলেছেন, ‘আমি যে কিভাবে শুরু করবো... আমরা খুব ভাগ্যবান। আমরা যে এখানে বসে আছি, আপনাদের সবার দোয়ায়। বাবা-মা, পরিবার-পরিজন সবার কাছে ফিরে আসতে পেরেছি।’

দেশ ফিরলেও গত শুক্রবার যে মানসিক ধাক্কা খেয়েছে ক্রিকেটাররা সেটা কাটিয়ে উঠতে সময় লাগবে তাদের। সেই ঘটনার কথা মনে করাতেই মাহমুদুল্লাহ বলেছেন, ‘এটা বর্ণনা করতে পারব না আমরা কিসের মধ্যে আছি, আমরা কী দেখেছি। নিউজিল্যান্ডের মতো দেশে এমন ঘটনা খুবই অপ্রত্যাশিত। এটা সত্যিই দুঃখজনক। দলের কেউ সারারাত ঠিকমতো ঘুমাতেও পারিনি। যখন রুমে ছিলাম তখন বুঝতে পারছিলাম আমরা কতটা ভাগ্যবান।’

মানসিকভাবেই বিপর্যস্ত ক্রিকেটাররা। মাহমুদুল্লাহদের মনের ভেতর গিয়ে কী যাচ্ছে সেটা অনুধাবন করতে পারছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে ক্রিকেটারদের পরামর্শ দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বলেছেন, ‘ওরা যে ভয়াবহ একটা পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে এসেছে তা আমি যখন ওদের সাথে কথা বলে বুঝেছি। ঘটনার পর প্রথম থেকেই আমরা সকলে বুঝতে পারছিলাম ওদের ওপর দিয়ে মানসিকভাবে কী যাচ্ছে।’

নাজমুল আরো বলেছেন, ‘আমি শুধু বলেছি, যাও, বাসায় যাও। এখন সবকিছু বাদ দিয়ে কিছুদিন ঠাণ্ডা মাথায় নিজেদের মতো করে যেটা ভালো লাগে সেভাবে কয়েকটা দিন কাটাও। সবকিছু ঠাণ্ডা হলে আমাদের সাথে এসে যোগাযোগ করো। খেলাধুলা নিয়ে এই মুহূর্তে চিন্তাভাবনা করতে বলছি না। পরিবারের সাথে সময় কাটাও। আর আমরা আছি। যদি কারো কোনো সহযোগিতা লাগে আমরা আছি। এটাই ওদের বললাম।’

টেস্ট সিরিজে আগেই ২-০ ব্যবধানে হেরে গেছে বাংলাদেশ। শনিবার ক্রাইস্টচার্চে সেখানেই তৃতীয় ও শেষ টেস্ট হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আগের দিন ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে সন্ত্রাসীদের হামলায় ৪৯ জন নিরীহ মুসলিম নিহত হন। এই ঘটনার পর বাতিল করা হয়েছে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট।