advertisement
আপনি দেখছেন

ইনজুরিপ্রবণ বলে বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে তরুণ পেসার মোস্তাফিজুর রহমানকে এবারের আইপিএলে খেলার অনুমতি দেয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সাকিব আল হাসানের আইপিএল খেলতে যাওয়া নিয়েও একটা পক্ষের আপত্তি ছিল। কিন্তু ইনজুরি ফেরত সাকিব খেলার মধ্যে থাকতে পারবেন বলে বোর্ড শেষ পর্যন্ত তাকে অনাপত্তিপত্র দিয়েছিল।

shakib mustafiz ipl 2018

আঙ্গুলের ইনজুরির কারণে অনেকদিন ধরে মাঠের বাইরে ছিলেন সাকিব। গত বিপিএলের ফাইনালে আঙ্গুলে চোট পান। তারপর নিউজিল্যান্ড সিরিজের পুরোটা মিস করেছেন। ফলে বিশ্বকাপের আগে খেলার মধ্যে রাখার চিন্তায় সাকিবকে আইপিএল খেলার অনুমতি দিয়েছিল বোর্ড। কিন্তু সেই চিন্তার বাস্তবায়ন হচ্ছে কই।

এখন পর্যন্ত চলতি আইপিএলে মাত্র একটি ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ পেয়েছেন সাকিব। যেখানে তার দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ খেলে ফেলেছে পাঁচটি ম্যাচ। হায়দরাবাদের হয়ে প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমে বল হাতে তেমন সুবিধা করতে পারেননি সাকিব। অন্যদিকে ব্যাটিং করার সুযোগও মেলেনি। এরপর থেকে আর কোনো ম্যাচের একাদশে দেখা যায়নি বাংলাদেশি অলরাউন্ডারকে।

এদিকে আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবি হায়দরাবাদের হয়ে বল হাতে যেভাবে পরপর দুই ম্যাচে ঝলসে উঠলেন তাতে মনে হয় না যে অচিরেই সাকিবকে সেরা একাদশে দেখা যাবে!

এদিকে কদিন পর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশের প্রশিক্ষণ ক্যাম্প। ফলে প্রশিক্ষণ ক্যাম্প শুরু হতেই দেশে ফিরিয়ে আনার চিন্তা করছে বিসিবি।

স্বয়ং বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমন আভাস দিয়েছেন। গতকাল শনিবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে উত্তরে পাপন বলেন, ‘বিশ্বকাপ যেহেতু ৫০ ওভারের খেলা, তাই টি-টোয়েন্টির সঙ্গে এর বড় পার্থক্য। তবে আইপিএলে ও (সাকিব) যদি খেলার মধ্যে থাকত, ম্যাচ প্র্যাকটিস ওর জন্য বড় একটা ফ্যাক্টর হতো।’

পাপন বলেন, ‘ও যেহেতু একটা লম্বা গ্যাপে ছিল (খেলার বাইরে), আমাদের ধারণা ছিল ও ম্যাচ প্রক্যাটিসে থাকলে ভালো কাজে দিবে। কিন্তু যেহেতু টিম কম্বিনেশনের কারণে খেলা হচ্ছে না তার, তাই আমি মনে করি আমাদের ক্যাম্প যখনই শুরু হবে সঙ্গে সঙ্গেই তাকে ফেরত নিয়ে আসাটা ভালো হবে।’