advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

দলের অন্য ব্যাটসম্যানদের হাবুডুবুর মধ্যে অনেকক্ষণ ক্রিজে ছিলেন বিরাট কোহলি। ওপেনিং করতে নেমে আউট হয়েছেন একেবারে আঠারোতম ওভারে গিয়ে। কিন্তু লম্বা সময় ক্রিজে থাকলেও বড় রান তুলতে পারেননি সমালোচনায় জর্জরিত কোহলি। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে তার দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুও বেশিদূর এগুতে পারেনি। গত ম্যাচে দুই'শ পেরুনো স্কোর করলেও রাসেল ঝড়ের কাছে হেরে যায় বেঙ্গালুরু। যেন কিছুতেই কিছু হচ্ছে না কোহলিদের।

virat kohli sad ipl 2019

১২তম আইপিএলের ২০ নম্বর ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান তুলেছে কোহলির বেঙ্গালুরু। এম চেন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই অভিজ্ঞ ওপেনার পার্থিব প্যাটেলকে হারিয়ে বসে বেঙ্গালুরু। দলীয় ১৬ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ৯ রানে আউট প্যাটেল। অল্প সময় পর ফিরে গেছেন এবি ডি ভিলিয়ার্সও (১৭)। কাগিসো রাবাদার নিয়ন্ত্রিত পেসে বেঙ্গালুরুর এই উইকেট খোওয়ানোর গতিটা শেষ পর্যন্ত অব্যাহত ছিল। ফলে কোহলি একপ্রান্তে ধরে রাখলেও বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি দলটি।

ওপেনিংয়ে নামা কোহলি ৩৩ বলে ৪১ রান করে ফিরেছেন। তার ইনিংসে চারের মার ছিল ১টি, ছক্কা দুটি। এতেই বুঝা যায় কতোটা রয়ে-সয়ে খেলতে চেয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক। পাঁচে নেমে ১৮ বলে ৩২ রান করা মঈন আলি বেঙ্গালুরুর পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

কাগিসো রাবাদা চার ওভারে মাত্র ২১ রান খরচায় তুলে নিয়েছেন চার উইকেট। ২৮ রানে দুটি উইকেট পেয়েছেন ক্রিস মরিচ। কোহলিদের এভাবে হাঁসফাঁস করার দিনেও চার ওভারে ৪৬ রান খরচ করে আশ্চর্য করেছেন নেপালের তরুণ তারকা স্পিনার সন্দ্বীপ লামিচানে।

sheikh mujib 2020