advertisement
আপনি দেখছেন

পর্যাপ্ত উইকেট থাকা সত্ত্বেও বড় সংগ্রহ করতে পারল না রাজস্থান রয়্যালস। স্বাভাবিকভাবেই সেটার মাশুল দিতে হলো হার দিয়ে। আজ কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) সঙ্গে ন্যূনতম প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করতে পারেনি আজিঙ্কা রাহানের রাজস্থান।

gurney and karthik share a fist bump

টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৩৯ রানের মামুলি সংগ্রহ করে রাজস্থান। জবাব দিতে নেমে আট উইকেট ও ৩৭ বল হাতে রেখে দারুণ জয় তুলে নেয় কলকাতা। দাপুটে এই জয়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে গেছে কেকেআর।

পাঁচ ম্যাচে চার জয় ডিনেশ কার্তিকের দলের। তাদের সমান আট পয়েন্ট চেন্নাই সুপার কিংসেরও। তবে রানরেটে পিছিয়ে থাকায় শীর্ষস্থানটা কেকেআরের জন্য ছেড়ে দিতে হলো মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাইকে। সমান ছয় পয়েন্ট নিয়ে চেন্নাইর পেছনে আছে যথাক্রমে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, দিল্লি ক্যাপিটালস ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব।

আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় রাজস্থান রয়্যালস। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে অধিনায়ক রাহানেকে হারায় তারা। পরে জস বাটলার ও স্টিভেন স্মিথের দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ধাক্কা সামাল দেয় রাজস্থান। দুজন মিলে করেন যোগ করেন ৬৮ রান। কিন্তু দ্রুত গতিতে রান তোলার ছন্দটা শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারেনি রাজস্থান।

৩৪ বলে পাঁচটি চার ও এক ছক্কার সুবাদে ৩৭ রানের মন্থর গতির ইনিংস খেলে বিদায় নেন বাটলার। তবে সঙ্গী হারালেও অনেক দূরে গিয়েছিলেন স্টিভেন স্মিথ। দীর্ঘ সময় ক্রিজে থেকে পরিস্থিতির দাবি খুব একটা মেটাতে পারেননি তিনিও। বৃথাই গেল স্মিথের ৭৩ রানের হার না মানা ইনিংসটা।

সাতটি চার ও এক ছক্কায় ৫৯ বলে ইনিংসটি সাজান অস্ট্রেলিয়ান তারকা। রাজস্থানের দলীয় সংগ্রহ অন্তত দেড় শ ছাড়াতে পারতো। সেটা সম্ভব হয়নি রাহুল ত্রিপাঠি ও বেন স্টোকস প্রস্তর যুগের ব্যাটিংয়ে। যা ম্যাচে রাজস্থানকে ডুবিয়েছে। আট বলে ছয় রান করেন ত্রিপাঠি। ১৭ বলে রাত রানে অপরাজিত ছিলেন স্টোকস।

১৪০ রানের সহজ লক্ষ্যমাত্রায় অনায়াসেই পৌঁছে গেছে কলকাতা। ৯১ রানের দারুণ জুটি গড়ে সহজ জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছেন দুই ওপেনার ক্রিস লিন ও সুনিল নারাইন। ৩২ বলে 50 রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে আউট হয়েছেন লিন। ইনিংসে ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কা মেরেছেন তিনি। ২৫ বলে লিনের সমান বাউন্ডারিতে ৪৭ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছেন নারাইন।

শেষ দিকে দুটি ছক্কা ও এক চারে ১৬ বলে ২ রানে অজেয় ছিলেন রবিন উথাপ্পা। যদিও ম্যাচ সেরা হয়েছেন হ্যারি গারনি। কলকাতার পতন হওয়া তিন উইকেটের দুটি তুলে নিয়েই ম্যাচ সেরার স্বীকৃতি পেয়েছেন ইংলিশ এই পেসার।

সোমবারের খেলা:

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব-সানরাইজার্স হায়দরাবাদ
সরাসরি, রাত ৮.৩০টা

রাজস্থান-কলকাতার পরের ম্যাচ:

চেন্নাই সুপার কিংস-কলকাতা নাইট রাইডার্স
৯ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা

রাজস্থান রয়্যালস-চেন্নাই সুপার কিংস
১১ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা