advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 20 মিনিট আগে

আজও প্রত্যাশা মতো পারফর্ম করতে পারলেন না জয়দেব উনাদকাট। বিস্ময়কর দামে বিক্রি হওয়া রাজস্থান রয়্যালসের এই পেসার চার ওভার বোলিং করে একটি উইকেট পেলেও রান দিয়েছেন ৩৬। রাজস্থানের বাকি বোলাররাও সেভাবে ‘রান চেক’ দিতে পারেননি।

rohit sharma quinton de kock mumbai

যাতে বড় স্কোরই পেয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। আজ রাজস্থানের বিপক্ষে আইপিএলের ২৭ নম্বর ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং করে ১৮৭ রানের সংগ্রহ গড়েছে মুম্বাই। ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছেন মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা। রানও পেয়েছেন। ৩২ বলে ৪৭ করেছেন ভারতীয় ওপেনার। তবে আজ মুম্বাইয়ের ব্যাটিংয়ের নায়ক কুইন্টন ডি কক।

৫২ বলে ৮১ রান করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকান ওপেনার। পাঁচে নেমে মাত্র ১১ বলে ১ চার ও ৩ ছয়ে অপরাজিত ২৮ রান করেছেন হার্দিক পান্ডিয়া। ইনিংসের শেষ ওভারে এই উনাদকাটের উপরই বেশি চড়াও হয়েছিলেন হার্দিক। ওই ওভার থেকে নিয়েছেন ১৬ রান। তালগোল পাকানো উনাদকাটকে ওই ওভারে দুটি ওয়াইডও করতে দেখা গেল।

আজকের ম্যাচের আগেও প্রত্যাশা মতো পারফর্ম করতে পারেননি এই ভারতীয় পেসার। সেরা একাদশে অনিয়মিত হয়ে পড়েছেন। আজকের আগে ছয়টি ম্যাচ খেলেছে রাজস্থান। কিন্তু উনাদকাট সুযোগ পেয়েছেন চার ম্যাচ খেলার। 

অথচ এই বোলারটিকেই ৮ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে কিনেছে রাজস্থান। বাংলাদেশি টাকায় অঙ্কটা দশ কোটিরও বেশি। এটা ঠিক যে বেশি দামে বিক্রি হয়ে প্রত্যাশামতো পারফর্ম না করার উদাহরণ অহরহ আইপিএলে। কিন্তু উনাদকাটের মতো উদাহরণ হয়তো আর নেই!

এর আগে আইপিএলে অর্থাৎ ২০১৮ সালের আইপিএলের জন্য পাক্কা ১১ কোটি রুপিতে বিক্রি হয়েছিলেন তিনি। কিনেছিল বর্তমান দল রাজস্থানই। সেবার তার পারফরম্যান্স ছিলে একেবারেই সাদামাটা। কিন্তু তারপরও তাকে এবার সেই রাজস্থানই প্লেয়ার ড্রাফট থেকে কিনে নেয় ৮ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে।

sheikh mujib 2020