advertisement
আপনি দেখছেন

সরে দাঁড়ানোর অগ্রিম ঘোষণা দিলেন আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর। আগামী বছরের মে মাসে শেষ হচ্ছে তার মেয়াদ। কিন্তু উত্তীর্ণ হওয়ার পর আর আসন ধরে রাখার জন্য লড়ছেন না তিনি। যদিও ভারতীয় এই সংগঠকের আরো দুই বছর আইসিসির চেয়ারম্যান হিসেবে থেকে যাওয়ার সুযোগ ছিল।

icc chairman shashank manohar

মঙ্গলবার ভারতীয় প্রচারমাধ্যম দ্য হিন্দুকে আইসিসি চেয়ারম্যান মনোহর বলেছেন, ‘আরো দুই বছর (দায়িত্ব পালন করা) চালিয়ে যাওয়ার আগ্রহ আমার নেই।’ যার অর্থ দাঁড়াচ্ছে আগামী কয়েক মাস পরই আইসিসি পেতে যাচ্ছে নতুন আরো একজন চেয়ারম্যানকে।

২০১৬ সালে ক্রিকেটের ক্রান্তিকাল চলাকালীন আইসিসির প্রথম স্বাধীন চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন মনোহর। ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থার সর্বোচ্চ চেয়ারের বসার জন্য কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল না ভারতীয় এই সংগঠকের। দ্বিতীয় মেয়াদেও মনোহরকে প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে হয়নি।

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী একজন চেয়ারম্যান সর্বোচ্চ তিনবার নির্বাচিত হতে পারেন। এক্ষেত্রে হ্যাটট্রিকের সুযোগ ছিল তার। ক্রিকেটের শীর্ষস্থানীয় প্রচারমাধ্যমের খবর- এবারো বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে পারতেন তিনি। কিন্তু সুযোগটা হাতছাড়া করলেন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সাবেক সভাপতি।

আইসিসির বোর্ডের ১৫ পরিচালকের অধিকাংশই মনোহরকে হ্যাটট্রিক করার অনুরোধ করেন। কিন্তু তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার মতো করেই। মনোহার বলেছেন, ‘অধিকাংশ পরিচালকই আমাকে অনুরোধ করেছেন (আইসিসি চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ) চালিয়ে যাওয়ার জন্য। কিন্তু আমি তাদের বলে দিয়েছি যে, আমার আগ্রহ নেই। আমি প্রায় পাঁচ বছর ধরে চেয়ারম্যান হিসেবে আছি। আমি পরিষ্কার করতে চাই যে, ২০২০ জুনের পর আমি আর থাকছি না।’