advertisement
আপনি দেখছেন

শুরু হয়ে গেল বিশেষ টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু  বিপিএল। বাইশ গজে ব্যাট-বলের যুদ্ধে অংশ নেওয়া দলগুলোকে নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের এই পর্বে থাকছে রংপুর রেঞ্জার্স। কেমন হলো দলটা? রংপুরের সার্বিক বিষয়াদি টোয়েন্টিফোর লাইভ নিউজ পেপারের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:

rangpur rangers

রংপুর রাইডার্স নামে সবশেষ ২০১৭ সালে বিপিএলের শিরোপা জিতেছিল রংপুরের দল। কিন্তু শ্রেষ্ঠত্ব গত মৌসুমেই হারিয়ে ফেলেছে তারা। এবারের বিশেষ টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু বিপিএলেই তাই রাজত্ব উদ্ধারের মিশনে নামছে তারা। দলটার নতুন নাম রংপুর রেঞ্জার্স।

শিরোপা অর্জনের চেয়ে যে ধরে রাখাটাই বেশি কঠিন সেটা বিপিএলের গত মৌসুমেই টের পেয়েছে রংপুর। উঠতে পারেনি সেরা চারেও। এবার সেই দুঃখ ঘোচানোর পালা। হারানো মুকুট ফিরিয়ে আনতে এই আসরে শক্তিশালী দল গঠন করেছে রংপুর রেঞ্জার্স।

কাগজে-কলমে শক্তিশালী দলটা শুরুর দিকে পৃষ্ঠপোষক পায়নি। যে দুটি দল স্পন্সর পাচ্ছিল না তার একটি রংপুর। শেষ অবধি ‘ইনসেপটা’কে পৃষ্ঠপোষণায় পেয়েছে তারা। তবে পৃষ্ঠপোষক না পেলেও টুর্নামেন্টের আয়োজক বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাদের অর্থায়নের জন্য প্রস্তুত ছিল।

পৃষ্ঠপোষক পেয়েছে রংপুর রেঞ্জার্স। কিন্তু পছন্দসই দেশি অধিনায়ক পায়নি তারা। তাই নেতৃত্বের জোয়াল তারা চাপিয়ে দিয়েছে আফগানিস্তানের অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবির কাঁধে। আগের দুই আসরের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা এবার খেলছেন ঢাকা প্লাটুনের হয়ে।

দুটি কারণে নবিকে অধিনায়ক হিসেবে বিবেচনা করেছে রংপুর। প্রথমত, বিপিএলের যথেষ্ঠ অভিজ্ঞতা রয়েছে আফগান তারকার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও আফগানিস্তানকে দীর্ঘ সময় নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। এবার রংপুরকে শিরোপা জেতানোর চ্যালেঞ্জ নিতে হলো তাকে।

অন্য পাঁচটি দলের মতো রংপুরও বিদেশি প্রধান কোচ নিয়োগ দিয়েছে। আসরে রংপুরের দলটি খেলবে কিউই কোচ মার্ক ও’ডনেলের অধীনে। নিউজিল্যান্ডের অভিজ্ঞ কোচ ডেপুটি হিসেবে পাচ্ছেন স্পিন কোচ মোহাম্মদ রফিককে।

রংপুরের সবচেয়ে বড় শক্তি তাদের বোলিং বিভাগ। এই দলটায় আছেন দেশের ক্রিকেটের তারকা দুই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ। স্পিন বিভাগের শক্তি নাঈম শেখ ও আরাফাত সানি। স্থানীয় ক্রিকেটাররা বোলিং বিভাগের শক্তি হলেও ব্যাটিংয়ে কিছুটা দুর্বলতা আছে।

তাই রংপুর রেঞ্জার্সের ব্যাটিং বিভাগের ঘানি টানার আসল দায়িত্বটা পড়ছে বিদেশিদের কাঁধে। নবি, শাই হোপ, ক্যামেরন ডেলপোর্ট ত্রয়ীই মূল ভরসা রংপুরের। ঘরোয়া ক্রিকেটে আলো ছড়ানো দেশের তরুণরা নিজেদের সবটুকু নিংড়ে দিতে পারলে ২০১৭ সালের পর আবারো শিরোপা স্বপ্ন দেখতে পারে রংপুর।

মাঠের লড়াইয়ে যখন মনোযোগ রংপুর রেঞ্জার্সের তখন সেখান থেকে চোখ সরাতে হলো তাদের। এতদিন দল গঠন ও দলের দেখভাল যিনি করেছেন সেই আকরাম খানকে টুর্নামেন্ট শুরুর আগের দিন সরিয়ে দেওয়া হলো। আকরামের বদলে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এনায়েত হোসেন সিরাজকে। কারণ দলের পৃষ্ঠপোষক ইনসেপটার সত্ত্বাধিকারী তিনি। আপাতত আকরাম কোথাও নেই।

রংপুর রেঞ্জার্স দল:

দেশি: মুফিজুর রহমান, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, আরাফাত সানি, জহুরুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, জাকির হাসান, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, নাদিফ চৌধুরি ও সঞ্জিত সাহা।

বিদেশি: মোহাম্মদ নবি, শাই হোপ, লুইস গ্রেগোরি, ক্যামেরন ডেলপোর্ট

অধিনায়ক: মোহাম্মদ নবি

প্রধান কোচ: মার্ক ও’ডনেল

স্পিন কোচ: মোহাম্মদ রফিক

পরিচালনায়: এনায়েত হোসেন সিরাজ

পৃষ্ঠপোষক: ইনসেপটা

সাফল্য: চ্যাম্পিয়ন (২০১৭)

পুরনো নাম: রংপুর রাইডার্স