advertisement
আপনি দেখছেন

ভারত সিরিজে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে পরা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বিপিএলের প্রথম দুটি ম্যাচ খেলতে পারেননি। ইনজুরি কাটিয়ে আজ মাঠে ফিরেছেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের অধিনায়ক। তাতে দলটি জয়েও ফিরল। রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে আজ ছয় উইকেটে জিতেছে চট্টগ্রাম।

 imrul kayes 44 run

রংপুরের ১৫৭ রানের জবাব দিতে নেমে দারুণ শুরু পায় চট্টগ্রাম। ওপেনিং জুটিতে ৭ ওভারে ৬৮ রান তোলেন চট্টগ্রামেও দুই বিদেশি ওপেনার অভিষ্কা ফেরনান্দো ও চ্যাডউইক ওয়ালটন।

ফেরনান্দো ২৩ বলে ৩৭ করে ফিরলে এই জুটি ভাঙে। তবে তাতে এতটুকুও বেগ পায়নি চট্টগ্রাম। ওয়ালটন অবিচলই ছিলেন, তিনে নেমে ইমরুল কায়েসও দারুণ একটা ইনিংস খেললেন। যাতে ১৮.২ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য ১৫৮ রান তুলে ফেলে চট্টগ্রাম।

দলটির পক্ষে ওয়ালটন ৩৪ বলে ৪ চার ৩ ছয়ে ৫০ রান করেন। ইমরুল ৩৩ বলে ৩ চার ২ ছয়ে ৪৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। রংপুরের হয়ে লুইস গ্রেগরি চার ওভারে ২৭ রান খরচায় দুই উইকেট নিয়েছেন।

প্রথম ইনিংস:

এর আগে রংপুর চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ গড়তে পেরেছে তরুণ নঈম শেখের ব্যাটে ভর করে। অনেকদিন অফ ফর্মে থাকা নাঈম আজ ৫৪ বল খেলে ৬ চার ৩ ছয়ে ৭৮ রান করেন। তরুণ ক্রিকেটার। মোহাম্মদ নবি পাঁচে নেমে ১২ বলে ২১ ও তাসকিন আহমেদ দশে নেমে ৪ বলে ১১ রান করেন। যাতে ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৮ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে রংপুর।

চট্টগ্রামের হয়ে দুই উইকেট পেয়েছেন উইলিয়ামস। তবে বল হাতে বেশি মুগ্ধ করেছেন ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। চার ওভার বোলিং করে মাত্র ১৭ রান খরচায় এক উইকেট নিয়েছেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক।

দু’দলের পরবর্তী ম্যাচ:

রংপুর রাইডার্সের পরবর্তী ম্যাচ ১৮ ডিসেম্বর। চট্টগ্রাম পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের মুখোমুখি হবে দলটি। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের পরবর্তী ম্যাচ ১৭ তারিখে। সিলেট থান্ডার্সের মুখোমুুিখ হবে দলটি।

আগামী দিনের ম্যাচ:

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে আপাতত ঢাকা পর্বে বিরতি। বিপিএল চলে যাচ্ছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামে। টুর্নামেন্টের পরবর্তী ম্যাচ ১৭ তারিখে। ওই দিন প্রথম ম্যাচে রাজশহী রয়্যালসের মুখোমুখি হবে খুলনা টাইগার্স। দ্বিতীয় ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে খেলবে সিলেট থান্ডার্স।