advertisement
আপনি দেখছেন

৬৩১ রানের ম্যাচ। তাতে নেই কোনো সেঞ্চুরি। তবে ব্যক্তিগত শতক না হলেও কটাকে দুর্দান্ত একটা ম্যাচই হলো। রানবন্যার এই ম্যাচে চার উইকেটে জিতে ওয়ানডে সিরিজ (২-১) নিজেদের করে নিল ভারত। রোববার তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ক্যারিবীয়দের ছুড়ে দেওয়া ৩১৫ রানের চ্যালেঞ্জ বিরাট কোহলির জয় করেছে আট বল বাকি থাকতেই।

kohli drives through the off side

অলিখিত ফাইনালে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুর চার ব্যাটসম্যানই আউট হয়েছেন উইকেটে থিতু হওয়ার পর। তবে হাফসেঞ্চুরি করতে পারেননি একজনও। দুই ওপেনার এভিন লুইস ও শাই হোপ খেলেছেন সমান ৫০টি করে বল। যেখানে লুইস ২১ ও হোপ ৪২ রান করেন।

১৫তম ওভারের শেষ বলে উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ৫৭ রানে। ধীরগতির শুরুর পর ধীরে ধীরে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসে ক্যারিবীয়রা। আসল ঝাড়টা উঠল ইনিংসের শেষ দিকে নিকোলাস পুরান ও অধিনায়ক কাইরেন পোলার্ডের ব্যাটে। ৬৪ বলে ১০টি চার ও তিন ছক্কায় ৮৯ রান করেছেন পুরান।

৫১ বলে তিনটি চার ও সাত ছক্কায় পোলার্ডের ব্যাটে উঠেছে ৭৪ রানের ঝড়। এই দুজনের তাণ্ডবের সুবাদে দলীয় সংগ্রহ তিন শ ছাড়িয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এ ছাড়া রোস্টন চেজ ৩৮ এবং শিমরন হেটমায়ার ৩৭ রানে সাজঘরে ফিরে গেছেন। ক্যারিবীয়দের পতন হওয়া পাঁচ উইকেটের দুটি নিয়েছেন নবদ্বীপ শাইনি।

লক্ষ্যটা কঠিন। কিন্তু অসম্ভব ছিল না। এ যাত্রায় ভারতের শুরুটা হয়েছে আশা জাগানিয়া। উদ্বোধনী জুটিতে এলো ১২২ রান। রোহিত শর্মার আউটে ভাঙে জুটি। ফেরার আগে হাফসেঞ্চুরি করেছেন টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানই। রোহিত ৬৩, লোকেশ রাহুল ৭৭ ও অধিনায়ক কোহলি ৮৫ রান করে দলের জয়ের ভিত গড়ে দেন।

এই ত্রয়ীর পরের তিনজনের কেউ যেতে পারেননি দুই অংকে। দলকে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে দিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন কোহলি। পরে তার অসমাপ্ত কাজের মধুর সমাপ্তি টানেন রবিন্দ্র জাদেজা (৩৯*) ও শার্দুল ঠাকুর (১৭*)। এই দুজনের ক্যামিও ইনিংসের ওপর দাঁড়িয়ে দারুণ জয় তুরে নেয় ভারত। স্বাগতিকদের পতন হওয়া ছয় উইকেটের তিনটি নিয়েছেন কিমো পল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

টস: বিরাট কোহলি (ভারত)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৫০ ওভার, ৩১৫/৫

ভারত: ৪৮.৪ ওভার, ৩১৬/৬

ফল: ভারত ৪ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরা: বিরাট কোহলি

সিরিজ: তিন ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জয়ী ভারত

সিরিজ সেরা: রোহিত শর্মা