advertisement
আপনি দেখছেন

একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে পাকিস্তান সফর থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। বিষয়টি পছন্দ হয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কয়েকজন পরিচালকের। বিসিবি সভাপতি সরাসরি তার অসন্তুষ্টির কথা প্রকাশ করেছেন। এদিকে, পাকিস্তানে দুই সফরের মাঝে বাংলাদেশে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে আসছে জিম্বাবুয়ে। ফলে ঘন-ঘন দল পরিবর্তন করার হাত থেকে বাঁচতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট দলে মুশফিককে না রাখার চিন্তা অনেকের।

mushfiqur rahim zimbabwe series

মুশফিকের মতো একজন ক্রিকেটারের জন্য দল থেকে বাদ পড়ার আলোচনা বিব্রতকরই বটে। তবে মুশফিক বললেন তিনি বিব্রত নন। অভিজ্ঞ ক্রিকেটার বলেন, ‘আমি তামিম ও সাকিবের মত বড় ক্রিকেটার নই। সবসময় নিজেকে ছোট ক্রিকেটার হিসেবেই ভাবি। দেখেন আমি সবসময় বলি পরবর্তী সিরিজে কীভাবে দলে সুযোগ পাবো এই নিয়েই পরিকল্পনা করি। তাই এটি আমার জন্য খুব বিব্রতকর কিছু না। এটা স্বাভাবিকভাবেই নিচ্ছি তারা যা ভাবছে তাই বলছে।'

বিপিএলে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে পড়েছেন মুশফিক। জানালেন, এই মুহূর্তে ফিট হওয়া নিয়েই ভাবছেন তিনি। ফিট হলে অবশ্যই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলতে চান।

মুশফিক বলেন, ‘আমার ফিট হোওয়াটা এখানে জরুরি, বিসিএলে একটি ম্যাচ আছে (জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণার আগে)। আর আমি চেষ্টা করবো যেন নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যদের খুশি করতে পারি। যদি তারা মনে করে আমি দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ তাহলে তারা আমাকে পরের সিরিজে দলে নেবে।'

৩২ বছর বয়সী ক্রিকেটার আরো বলেন, ‌‘মঙ্গলবার অথবা বুধবার ফিটনেস পরীক্ষা দেব যদি সব ঠিক থাকে। বিসিএলের দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবো। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে না খেলার কোনো কারণ দেখছি না। নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করছি। দলে সুযোগ পাওয়া না পাওয়া আমার হাতে নেই। তবে আমার চেষ্টা থাকবে ওদের বিপক্ষে খেলার। শুধু টেস্ট না তিন ফরম্যাটই খেলতে চাই। সুযোগ পেলে সেরাটা দিয়েই খেলবো।’

উল্লেখ্য, একটি টেস্ট খেলতে আজ পাকিস্তানে যাচ্ছে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে একটি টেস্ট খেলে ফিরে মার্চের প্রথমভাগে আবারও পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ দল। এর মাঝখানে একটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলতে বাংলাদেশে আসবে জিম্বাবুয়ে দল। সিরিজের প্রথম ম্যাচ মাঠে গড়ানোর কথা ২২ ফেব্রুয়ারি।