advertisement
আপনি দেখছেন

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন একমাত্র টেস্টের দলে মুশফিকুর রহিমকে কী আসলেই রাখা হচ্ছে না? এই প্রশ্নে বেশ চর্চা চলছে ক্রিকেটপাড়ায়। এর মধ্যেই ফিটনেস টেস্টে উতরে গেলেন মুশফিক।

mushi practice sbncs

গত বঙ্গবন্ধু বিপিএলে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে পড়েন মুশফিক। আজ মঙ্গলবার ইমরুল কায়েসের সঙ্গে ফিটনেস টেস্টের মুখোমুখি হন।

বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী জানালেন, ফিটনেস টেস্টে উতরে গেছেন দুজনই। বিসিএলের দ্বিতীয় রাউন্ডের জন্য পুরোপুরি ফিট মুশফিক।

দেবাশিষ বলেন, ‘মুশফিক ও ইমরুল দু’জনই হ্যামস্ট্রিং এবং কাফ (গোড়ালি) ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করছেন। তারা এখন পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যাবে। মুশফিকের ইনজুরি হচ্ছে গ্রেড ওয়ান। এ কারণে আমরা আশা করতে পারি, ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে সে পুরোপুরি সেরে উঠবে। ইমরুলের সম্ভবত আরও এক সপ্তাহ বেশি লাগতে পারে। ফিটনেস টেস্টে পাশ করেছেন। খেলার জন্য তারা দুজনই প্রস্তুত।’

উল্লেখ্য, একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে পাকিস্তান সফর থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। আজ তাকে ছাড়াই রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এরপর এপ্রিলের প্রথমভাগে টেস্ট ও ওয়ানডে খেলতে আবারও পাকিস্তানে যাবে টাইগাররা। এই দুই সফরের মাঝে বাংলাদেশে একটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলতে আসবে জিম্বাবুয়ে।

ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচের দলে মুশফিককে না রাখার চিন্তা করছেন টিম ম্যানেজমেন্টের একটা অংশ। তবে মুশফিক জানিয়ে রেখেছেন, জিম্বাবুয়ে সিরিজে অবশ্যই খেলতে চান তিনি।