advertisement
আপনি দেখছেন

রাত পোহালেই বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট। ম্যাচের আগের দিন দুই দলের অধিনায়কের সংবাদ সম্মেলনে কথা বলা এখন অনেকটা নিয়মেই পরিণত হয়েছে, আজও তাই হলো। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বললেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক ও জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক শেন উইলিয়াম। বাংলাদেশ দলের পক্ষ সংবাদ সম্মেলনে মুমিনুলের সঙ্গে প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোও এসেছিলেন। বলে গেলেন, বাংলাদেশের সমর্থক ও সংবাদ মাধ্যমকে ধৈর্য ধরতে হবে।

russell domingo mominul

সংবাদ সম্মেলন তখন শেষ প্রায়। রাসেল ডমিঙ্গো নিজে থেকেই সকলের কাছ থেকে সময় চেয়ে নিয়ে বললেন, ‘যাওয়ার আগে দুই একটি বিষয়ে কথা বলতে চাই। আমি জানি, বাংলাদেশের মানুষ ক্রিকেটকে পাগলের মতো ভালোবাসে। দর্শক, সংবাদমাধ্যম, সবকিছুই অবিশ্বাস্য এখানে। তবে সবাইকে বুঝতে হবে, এই টেস্ট দলটা অনভিজ্ঞ। নাজমুল (হোসেন শান্ত) ৩টি টেস্ট খেলেছে, সাইফ (হাসান) তার দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে যাচ্ছে। আবু জায়েদ (রাহি) মাত্র ৭টি টেস্ট খেলেছে। এবাদত খেলেছেন ৪টি। দলটা খুবই অনভিজ্ঞ।’

প্রধান কোচ বলেন, ‘মুমিনুল অধিনায়ক হয়েই ভারত, পাকিস্তানের বিপক্ষে অধিনায়কত্ব করেছে। বিশ্বের অন্যান্য অধিনায়কের হাতে ১০০-১৫০ টেস্ট খেলা টেস্ট বোলার আছে। আমাদের তা নেই। আমি বলতে চাচ্ছি, সংবাদমাধ্যমকে ধৈর্য ধরতে হবে। নির্বাচকদেরও কিছু ক্রিকেটারদের ওপর ভরসা রাখতে হবে। আমি যে দলের কোচিং করাচ্ছি, এই মুহূর্তে টেস্ট ক্রিকেটে এটিই সবচেয়ে অনভিজ্ঞ টেস্ট দল। সুতরাং ধৈর্য ধরুন।’

ডমিঙ্গো বলেন, ‘ছেলেরা কঠোর পরিশ্রম করছে। সমর্থক ও সংবাদমাধ্যমের সমর্থন ওদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ভালো আমাদের খেলতেই হবে, ওরা এটা জানে। তবে বড় প্রতিপক্ষের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে কিছু সময় দিতে হবে তাদের। ওরা আপনাদের গর্বিত করবে। কিছু সময় দরকার এই যা।’

প্রধান কোচের প্রত্যাশাটা মোটেও ফেলে দেওয়ার মতো নয়। নিষেধাজ্ঞার কারণে সাকিব আল হাসান বাইরে। অফ ফর্মের কারণে দল থেকে বাদ পড়েছেন মাহমুদুল্লাহ। এই মুহূর্তে টেস্ট দলে অভিজ্ঞ বলতে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম আর মুমিনুল হকই আছেন।