advertisement
আপনি দেখছেন

পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) মাঠে গড়ানোর কয়েক ঘণ্টা আগে তড়িৎ এক বিজ্ঞপ্তিতে উমর আকমলকে নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, পিসিবি। তবে নিষেধাজ্ঞার কারণ উল্লেখ করেনি।বিষয়টি নিয়ে বেশ ফিসফাস চলছিল। এর মধ্যে চমকপ্রদ এক খবর প্রকাশ করল জিও নিউজ।

shahid afridi umar akmal drops

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমটির দাবি, ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিষয়ে জুয়াড়িদের সঙ্গে আলাপ চালাচ্ছিলেন উমর। নিষিদ্ধ হয়েছেন সেই কারণেই। দুর্নীতিবিরোধী সংস্থার জিজ্ঞেসাবাদে নিজের অপরাধের কথা নাকি স্বীকারও করেছেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান।

চারদিন ধরে আকমলের কাছে আসা সব ধরনের ফোন কলের ওপর নজর রাখছিল পিসিবির দুর্নীতিবিরোধী সংস্থা। তারপর বুধবার বিষয়টি বোর্ড প্রধান এহসান মানিকে খুলে বলে তারা। সে সময় বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান ও আকমলের পিএসএলের দল কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটরসের কোচ মঈন খানও উপস্থিত ছিলেন।

ঘটনা সম্পর্কে জানার পর তাৎক্ষণিকভাবে উমরকে নিষিদ্ধ করে পিসিবি। গতকাল পিসিবির বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আচরণবিধির ৪.৭.১ ধারা অনুযায়ী উমর আকমলকে তাৎক্ষণিকভাবে নিষিদ্ধ করা হলো। তদন্ত শেষ না হওয়ার পর্যন্ত কোনো রকমের ক্রিকেট ম্যাচ অংশ নিতে পারবেন না তিনি। এই তদন্ত প্রক্রিয়া চলমান। পিসিবি এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে রাজি নয়। তবে ওমরের বদলি খেলোয়াড় নিতে পারবে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটরস।’