advertisement
আপনি দেখছেন

মিরপুর টেস্টে গতকাল শেষ বিকেলে দুই উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। আজ চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করতে নেমে শুরুতেই আরও দুই ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বসে আফ্রিকান দলটি। সেভাবে বাংলাদেশের দুই স্পিনার নাঈম হাসান ও তাইজুল ইসলামের ঘুর্ণি বিষের জবাব দিতে পারছিলেন না জিম্বাবুয়ান ব্যাটসম্যানরা। সে কারণেই বুঝি ক্রেইগ আরভিন প্রতি আক্রমণের পথ বেছ নিতে চাইলেন! জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক অবশ্য সফল হতে পারেননি।

taijul islam test 2019

ব্যক্তিগত ৪৩ রানের মাথায় রান আউট হয়ে ফিরেছেন। ৫ উইকেটে ১১৪ রান নিয়ে লাঞ্চে গেছে জিশ্বাবুয়ে। ইনিংস পরাজয় এড়াতে আরও ১৮১ রান করতে হবে সফরকারীদের।

প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান আরভিন ৪৩ রান করেছেন মাত্র ওয়ানডে মেজাজে। মাত্র ৪৯ বল খেলে ৬ চার ১ ছয়ে এই রান করেছেন তিনি। লাঞ্চের সময় ৫৬ বলে ৩৩ রান করে অপরাজিত ছিলেন সিকান্দার রাজা। তার সঙ্গে ৩ রানে অপরাজিত মারুমা।

দ্বিতীয় ইনিংসে জিম্বাবুয়ের পতন হওয়া পাঁচ উইকেটের তিনটিই তুলে নিয়েছেন তরুণ স্পিনার নাঈম হাসান। একটি উইকেট নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। অপরটি রান আউট।

উল্লেখ্য, নিজেদের প্রথম ইনংসে ২৬৫ রান তুলেছিল জিম্বাবুয়ে। মুশফিকুর রহিমের ডাবল সেঞ্চুরি ও মুমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে ছয় উইকেটে ৫৬০ রান তুলে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ।

sheikh mujib 2020