advertisement
আপনি দেখছেন

একদিন না একদিন সবাইকেই থামতে হয়, শেষের গান প্রত্যেকের জীবনে বাজে। ইতি বা থেমে যাওয়া শব্দ যুগল বিষাদের সুর হয়ে বাজলেও তা শুনতে হয় সবাইকেই। এবার থেমে গেলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। শেষ হলো অধিনায়ক মাশরাফি উপাখ্যান।

mashlast02

মাশরাফি নামের মহাকাব্যের সবচেয়ে বড় অধ্যায় হয়ে থাকবে মাশরাফির নেতৃত্বগুণের, বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়কের। যেখানে ৮৮ ম্যাচ নেতৃত্ব দিয়ে তার জয় ৫০ ম্যাচে। কী নিয়তি, থামার সময়ও স্পর্শ করে গেলেন এক মাইলফলক। সিরিজের শেষ ম্যাচ জিতে নিজের ক্যাপ্টেনসির ম্যাচ জয়ে অর্ধশতক করলেন। মাশরাফির সাফল্যের শতকরা হার যেখানে ৫৮ শতাংশ, সেখানে সাকিবের ৪৬ ও হাবিবুল বাশার সুমনের ৪২ শতাংশ।

এ ছাড়া তার নেতৃত্বে ২০১৫ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে নাম লেখায় টাইগাররা। বাংলাদেশের একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপে (২০১৫, ২০১৯) দেশকে নেতৃত্ব প্রদান করেন তিনি।

তার নেতৃত্বে ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে খেলার গৌরব অর্জন করে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। অর্জনের ভাণ্ডারে রয়েছে টানা দুবার এশিয়া কাপের রানার্সআপ হওয়ার কৃতিত্ব। আয়ারল্যন্ডের মাটিতে তিন জাতি সিরিজের ফাইনাল জিতে প্রথম শিরোপার স্বাদ পান মাশরাফিরা।

অধিনায়ক হিসেবে তার ঝুলিতে রয়েছে শতাধিক ওয়ানডে উইকেট।

শুধু সংখ্যায় মাশরাফির নেতৃত্ব বোঝানো যাবে না। বুঝতে হবে মাঠের ভেতর তার লড়াইটা দেখে, জয়ের আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্নটা দেখে। যে স্বপ্নটা কখনো বাইশ গজ ছাপিয়ে জীবনের চোখে চোখ রেখেও লড়তে শেখায়।

mashlast03

অধিনায়ককে বিদায়ী শুভেচ্ছা জানাতে সিলেট স্টেডিয়ামে ছুটে এসেছিলেন অন্তত হাজার ১৫ ক্রিকেট সমর্থক। ম্যাশের সতীর্থদেরও তাকে বিদায়ী শুভেচ্ছা জানাতে কমতি ছিল না। অধিনায়ক মাঠ ছেড়েছেন তামিমের কাঁধে চড়ে, রাজসিক বিদায় যাকে বলে। এ ছাড়া বাংলাদেশ দলের সব ক্রিকেটারের জার্সির পেছনে লেখা মাশরাফি, জার্সি নম্বর ছিল ২। জার্সির সামনে লেখা ছিল; "থ্যাঙ্ক ইউ ক্যাপ্টেন।"

তাই শেষবেলায় বলাই যায়, শুধু ক্রিকেটার না এদেশের সকল ক্রিকেটপ্রেমীর কাছ থেকেও মাশরাফি এক সমুদ্র 'ধন্যবাদ' প্রাপ্য।

sheikh mujib 2020