advertisement
আপনি দেখছেন

ভারত-পাকিস্তান দ্বন্দ্বের সুফল আরো একবার পেতে পারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এশিয়া কাপের আয়োজন হতে পারে বাংলাদেশে। তবে আয়োজক থাকবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডই (পিসিবি)। শেষ পর্যন্ত এশিয়ান ক্রিকেটের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই কোথায় হচ্ছে তা জানা যাবে এ মাসের শেষ দিকেই।

ehsan and nazmul

নিজেদের মাটিতে এশিয়া কাপ আয়োজন করতে মরিয়া পাকিস্তান। কিন্তু কূটনৈতিক দ্বন্দ্বের জের ধরে পাকিস্তানে খেলতে যেতে রাজি নয় ভারত। প্রয়োজনে এশিয়া কাপ বর্জন করারও হুমকি দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে টুর্নামেন্ট আয়োজন হলে ভেবে দেখা হবে বলে জানায় তারা।

সেই নিরপেক্ষ ভেন্যু হতে পারে বাংলাদেশ কিংবা সংযুক্ত আরব আমিরাত। টুর্নামেন্টের সবশেষ আসরের স্বাগতিক দেশ ছিল ভারত। কিন্তু পাকিস্তান ভারতে গিয়ে টুর্নামেন্ট খেলতে রাজি হয়নি। তাই মরুর বুকে বিসিসিআই আয়োজন করে এশিয়া কাপ। এবারো আরব আমিরাতে টুর্নামেন্ট আয়োজনের সম্ভাবনা আছে। কিন্তু সেখানকার প্রচণ্ড দাবদাহ ভাবনার বিষয় হয়ে উঠেছে।

এক্ষেত্রে বাংলাদেশ পাচ্ছে অগ্রাধিকার। তা ছাড়া সূত্রের খবর আছে, টাইগাররা পাকিস্তানে সফরে যাওয়ার নেপথ্যে নাকি অন্যতম একটা শর্ত ছিল বাংলাদেশে এশিয়া কাপ আয়োজন। যদিও খবরটা অস্বীকার করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এ নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানাননি পিসিবি প্রধান এহসান মানি-ও।

এর মধ্যেই আজ পাকিস্তানি প্রচারমাধ্যম ডেইলি এক্সপ্রেস পুরনো খবরটা দিলো নতুন করে। এক প্রতিবেদনে তারা দাবি করছে, বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরের অন্যতম প্রধান শর্ত ছিল এই এশিয়া কাপের আয়োজন। বিসিবি সভাপতি নাজমুল বর্তমানে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলেরও (এসিসি) প্রধানকর্তা। পিসিবিকে তিনি আশ্বস্ত করেছেন, বাংলাদেশে টুর্নামেন্ট আয়োজন হলে ভারতকে আনার দায়িত্ব তার। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এখন দুইয়ে দুইয়ে চার মেলার পালা।

পাকিস্তানে এখন চলছে পিএসএল। ফ্র্যাঞ্চাইজি এই টুর্নামেন্ট শেষে তৃতীয় তথা শেষ দফায় পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ। এ যাত্রায় এক ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ এবং আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের একটি ম্যাচ খেলবে টাইগাররা।

sheikh mujib 2020