advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ঠাঁই পেয়েছেন ১৬ জন ক্রিকেটার। বোর্ডের এবারের এই চুক্তিতে এসেছে নতুনত্ব। ইংল্যান্ডের মতো সাদা ও লাল বলের জন্য আলাদাভাবে ক্রিকেটার চুক্তিবদ্ধ করা হয়েছে।

soumya disappointed in bowling against sri lanka

যেখানে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ যেমন শুধু সাদা বলের চুক্তিতে এসেছেন; তেমনি মুমিনুল হক লাল বলের জন্য। উভয় বলে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আছেন সাতজন। ঠাঁই পেয়েছেন মোহাম্মদ নাঈমের মতো উঠতি ক্রিকেটাররও।

কিন্তু কোনো বলের চুক্তিতে রাখা হয়নি অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সৌম্য সরকার, শফিউল ইসলাম, আল-আমিন হোসেনেকে। এই ত্রয়ীর মধ্যে সৌম্যর না থাকাটা অনেকের কাছে বিস্ময়কর। কারণ বাংলাদেশের তিন সংস্করণের ক্রিকেটেই তিনি নিয়মিত মুখ।

বিদায়ী বছরে বাংলাদেশের ৩০ ম্যাচের ২৫টিতেই খেলেছেন সৌম্য। টেস্ট ও ওয়ানডেতে দলের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। তবু কেন সৌম্যকে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে রাখা হলো না? এনিয়ে জানতে চাইলে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু দাবি করলেন ‘ভুলে’ বাদ পড়েছেন এই ব্যাটসম্যান।

আজ টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে তিনি বলেছেন, ‘‘তালিকা ছোট করার সময়ই ওর নাম বাদ পড়ে গেছে। সৌম্য থাকছে সাদা বলের চুক্তিতে। ২৪ জনের মধ্য থেকে আমরা কাটছাঁট করেছি। ওই সময়ে একটু ভুল হয়ে গেছে।’

কেন্দ্রীয় চুক্তির জন্য শুরুতে ২৪ জনের প্রাথমিক তালিকা দিয়েছিলেন নির্বাচকরা। সেখান থেকে আট জনকে ছেঁটে দিয়েছে বোর্ড। ছাঁটাইয়ের তালিকায় নাম উঠে গেল সৌম্যর।

sheikh mujib 2020