advertisement
আপনি দেখছেন

একটা খবর ক্রিকেট দুনিয়াকে নাড়িয়ে দিয়েছে। মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত আইসিসি নারী বিশ্বকাপের ফাইনালটা যারা গ্যালারিতে বসে দেখেছেন তাদের করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি রয়েছে। বিষয়টা ভীষণ উদ্বেগের, উৎকণ্ঠার। স্বাভাবিকভাবেই নড়ে বসেছে আইসিসি। এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত না জানালেও পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে তারা।

india vs south africa 2

করোনাভাইরাস আতঙ্কের প্রভাবটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম দেখা গেছে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজে। সিরিজের দুই ম্যাচেই দর্শক সংখ্যা সীমিত করা হয়েছে। এবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পথে হাঁটল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। গ্যালারির টিকিট সীমিত করেছে তারা।

আজ ধর্মশালায় ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের গ্যালারি ছিল অর্ধেকেরও বেশি ফাঁকা। মাস্ক পড়ে স্টেডিয়ামে ঢুকতে দেখা গেছে দর্শকদের। কিন্তু মাঠে এলেও খেলা উপভোগ করতে পারেননি তারা। ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত বাতিল হয়েছে। করোনাভাইরাস আতঙ্কে নয়, ভারী বর্ষণে ভেস্তে গেছে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচটা।

অবশ্য ধর্মশালার ধর্মই এটা। সারা বছরই কমবেশি বৃষ্টিপাত হয়ে থাকে এখানে। হিমাচল রাজ্যের এই স্টেডিয়ামে অনেক ম্যাচই ভেসে গেছে বৃষ্টির কারণে। আজ টসও হয়নি। বল গড়ায়নি মাঠে। ম্যাচটা শুরুর নির্ধারিত সময়ের আগে আলোচনার কেন্দ্রে ছিল করোনাভাইরাস। ধর্মশালা স্টেডিয়ামের বাইরেও এই সংক্রমণ ঠেকানোর নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে।

ভারতে তুমুল জনপ্রিয় ক্রিকেট। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৬৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খবর জানা গেছে। সংক্রমণ ঠেকাতে এখন থেকেই বেশ তৎপর দেশটির প্রশাসন। ইতোমধ্যে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সব ধরনের ভিসা দেওয়া বাতিল করেছে ভারত।