advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের প্রভাবে আজ দর্শকশূন্য মাঠে খেলতে হয়েছে তাসমান সাগরের দুই প্রতিবেশী দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকে। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে সফরকারী নিউজিল্যান্ডকে ৭১ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিকরা।

aus odi team

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে আজ টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়াকে দুর্দান্ত শুরু এনে দেন দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নার।

ওয়ার্নার আউট হয়ে ফেরার আগে স্কোরবোর্ডে ১২৪ রান যোগ করে দেন এই দুই ব্যাটসম্যান। ওয়ার্নার করেন সর্বোচ্চ ৬৭ রান। এরপর আর কোনো জুটি খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি। দলীয় ১৪৫ রানের মাথায় অধিনায়ক ফিঞ্চ আউট হয়ে ফেরার আগে করেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬০ রান।

এরপরই ঘুরে দাঁড়ায় নিউজিল্যান্ডের বোলাররা। তাদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শেষ পর্যন্ত মোটামুটি একটা স্কোর দাঁড় করাতে সক্ষম হয় অজি ব্যাটসম্যানরা। পুরো ৫০ ওভার শেষে ৭ উইকেটে ২৫৮ রানে থামে তাদের ইনিংস।

ব্লাক ক্যাপসদের পক্ষে ৮ ওভারে ৫১ রানের বিনিময়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট সংগ্রহ করেন ইস সদি। এছাড়া লুকি ফার্গুসন ও মিশেল শান্টনার নেন দুইটি করে উইকেট।

পরে ব্যাট করতে নেমে অজি পেসারদের বোলিং তোপে শুরু থেকেই চাপে পড়ে সফরকারীরা। দলীয় ২৮ রানের মাথায় প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। দলীয় ৬৪ রানে সাজঘরের পথ ধরেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়তে থাকে। শেষ পর্যন্ত ৪১ ওভারে মাত্র ১৮৭ রানে গুটিয়ে যায় ব্লাক ক্যাপসরা।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন মার্টিন গাপটিল। এছাড়া টম লাথাম করেন ৩৮ ও কলিন ডে গ্রান্ডহোম করেন ২৫ রান। বাকিদের মধ্যে কেউ তেমন সুবিধা করতে পারেননি। স্বাগতিকদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট নেন প্যাট কামিন্স ও মিশেল মার্শ। এছাড়া ২টি করে উইকেট সংগ্রহ করেন জস হ্যাজেলউড এবং এডাম জাম্পা।

এদিন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে স্টেডিয়ামে দর্শক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচও দর্শশূন্য মাঠেই খেলতে হবে।

উল্লেখ্য, আগামী ১৫ মার্চ একই ভেন্যুতে দুই দলের পরবর্তী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।