advertisement
আপনি দেখছেন

কবে অবসর নিচ্ছেন ‘ক্যাপ্টেন কুল’ মহেন্দ্র সিং ধোনি? গত কয়েক বছর ধরেই এই প্রশ্ন বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে। দিন যত গড়াচ্ছে তত ডালপালা গজাচ্ছে এই প্রশ্নের। কেন ধোনি অবসর নিচ্ছেন না, ইতোমধ্যে কয়েকজন সাবেককে এ নিয়ে মৃদু বিরক্তিও প্রকাশ করতে দেখা গেছে। অবশেষে জানা গেল, ধোনি নাকি অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন।

dhoni retire

ধোনির অবসরের প্রশ্নে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড যতবার প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছে ততবারই তারা বল ঠেলে দিয়েছে ধোনির কোর্টে। ধোনি নিজেও অনেকবার এই প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন। প্রত্যেকবারই ‘সময় হলে দেখা যাবে’ টাইপ উত্তর দিয়ে কেটে পড়েছেন দ্রুত। এবার ধোঁয়াশা কাটল। জাতীয় দলে আর না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন ক্যাপ্টেন কুল, এমনটা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম স্পোর্টস কিডা। 

সংবাদমাধ্যমটি দাবি করেছে, অবসরের সিদ্ধান্তটা পরিবারের সদস্য এবং কাছের মানুষদের জানিয়েছেন ধোনি। বলেছেন, জাতীয় দলে তিনি আর খেলতে চান না। তবে আইপিএলের আরও অন্তত একটি মৌসুম খেলতে চান। ফিটনেস এবং পারফরম্যান্স ঠিক থাকলে আরও একটি। অবসরের কথাটাও আনুষ্ঠানিকভাবে জানাতে চান অন্তত একটা আইপিএল খেলে। ফলে পিছিয়ে যাওয়া আইপিএলের পরেই আসতে পারে তার অবসরের ঘোষণা। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে শেষ পর্যন্ত এবারের আইপিএল বাতিলও হয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে ধোনিকে আরেকটা আইপিএল না খেলেই হয়তো বিদায় বলতে হতে পারে।

স্পন্সরশিপের জটিলতার কারণেই হুট করে ধোনির পক্ষে জাতীয় দলকে বিদায় বলা সম্ভব নয়। তাছাড়া তিনি এখনও আইপিএলের দল চেন্নাই সুপার কিংসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ। অবসরের ঘোষণায় তারাও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তাই একটা মৌসুম খেলেই অবসরের ঘোষণা দেওয়ার ইচ্ছে তার। 

সন্দেহ নেই, ভারতের সর্বকালের সেরা ক্রিকেটারদের অন্যতম একজন মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু বাইশ গজের ওই পিচটা যে বড় নিষ্ঠুর। পারফরম্যান্স পড়ে যাওয়ার কারণে কত লিজেন্ডকেই ভিলেন বানিয়ে হটিয়ে দিয়েছে। তাই ভারতীয় দলের এক সময়ের ‘ফিনিশার’ এখন হয়ে উঠেছেন দলের বোঝা।