advertisement
আপনি দেখছেন

ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্রেঞ্জাইজি লিগ আইপিএল। চার-ছক্কার পাশাপাশি অর্থের ঝনাঝনানিতে যেকোন টি-টোয়েন্টি লিগের ধরাছোঁয়ার বাইরে কোটি টাকার এই আসর। সব দেশের ক্রিকেটারের কাছে তাই আইপিএলে খেলা রীতিমতো স্বপ্নের মতো। কিন্তু চাইলেই তো আর সে স্বপ্ন পূরণের সুযোগ হয়না।

mitchell starc sad ipl

অথচ সুযোগ থাকার পরও এবারের আইপিএল খেলবেন না অস্ট্রেলিয়ার গতি তারকা মিচেল স্টার্ক। মূলত টেস্টের জন্য ফিটনেস ধরে রাখতে এই টুর্নামেন্ট খেলতে রাজি নন এই অজি বোলার। সিদ্ধান্তটা অবশ্য নতুন করে নেননি। আইপিএলের ১৩ তম আসর হওয়ার কথা ছিল এবছরের মার্চে। তখনই তিনি না খেলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন।

কিন্তু সময় গড়িয়ে আগামী সেপ্টেম্বরে আইপিএল মাঠে গড়ালেও নিজের সিদ্ধান্ত বদলাননি স্টার্ক। তাতে অবশ্য দুঃখ নেই তার। সংবাদমাধ্যমকে এই বাঁহাতি বলেন, 'শুভ বুদ্ধির উদয় হওয়া দারুণ কিছু। আইপিএল আলাদা সময়ে হবে। তবুও আমি সিদ্ধান্ত বদলাচ্ছি না। সেপ্টেম্বরে সবাই যখন এই টুর্নামেন্ট খেলবে, আমি তখন বাইরে থেকেই খুশি থাকবো। সামনের সময়ের জন্য নিজেকে তৈরি করবো।’

mitchel starc celebrating a wicket at perth

আইপিএল খেললে একাউন্টে যোগ হতো বড় অঙ্কের টাকা। তবুও ইচ্ছাকৃতভাবে মাঠের বাইরে থাকাকেই ভালো মনে করছেন স্টার্ক। সেই সাথে জানালেন, ‘সামনের বছরও আইপিএল হবে। আমার মন যদি চায়, এবং কেউ দলে নিতে চাইলে আমি ভেবে দেখবো। তবে এ বছর না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়ে ভালো করেছি।’

আসছে সেপ্টেম্বরের ১৯ তারিখ শুরু হবে আইপিএলের ১৩তম আসর। ভারতে করোনা পরিস্থিতি দিন দিন খারাপ হওয়ায় শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্টটির জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতকেই বেঁছে নিয়েছে বিসিসিআই। প্রথমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় 'ক্লোজড ডোর' মাঠে আইপিএল আয়োজন করার। তবে এখন সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে আরব আমিরাত ক্রিকেট বোর্ড। তাই দুই দেশের সরকারের অনুমতি পেলে হাসি ফুটবে দর্শকদের মুখে।

sheikh mujib 2020