advertisement
আপনি দেখছেন

করোনার কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকে মাঠের ক্রিকেট। অবশেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে বাইশ গজের আলো ফিরিয়ে আনে ইংল্যান্ড। তবে ক্রিকেট ফিরলেও খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার বিষয়ে কোনো কমতি রাখেতি ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

pcb logo

শুধু ওয়েস্ট ইন্ডিজই নয়, এরপর পাকিস্তান দলও ইংল্যান্ড সফর করে এসেছে। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার সাথে ওয়ানডে সিরিজ খেলছে স্বাগতিকরা। সবমিলিয়ে করোনাকালীন ক্রিকেট প্রত্যাবর্তনে দারুণ প্রশংসা কুড়ায় ইসিবি।

মহামারির সময়েও একের পর এক সফল সিরিজ আয়োজন করতে ইংল্যান্ড মূলত জৈব সুরক্ষিত পরিবেশের উপর নজর দেয়। এই নিয়মে খেলোয়াড়সহ দলের সাথে জড়িত প্রত্যেকেই বাইরের দুনিয়া থেকে পৃথক থাকে। হোটেল এবং মাঠ ছাড়া কোথাও যাওয়ার সুযোগ থাকে না। এমনকি সাক্ষাৎ করা যায় না পরিবারের সদস্যদের সাথেও। তাই করোনার ঝুঁকি থাকে একদম শূন্যের কোটায়।

করোনায় অন্যান্য দেশের মতো পাকিস্তানেও দীর্ঘদিন খেলা বন্ধ আছে। আগামী মাসে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল সফর করবে দেশটিতে। সেজন্য খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সাথে দেখছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ইতোমধ্যে ইংল্যান্ডের কাছে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশ তৈরীতে দরকারি সহযোগিতা চেয়ে রেখেছে তারা।

logo england cricket board

এই সিরিজের ওপরই নির্ভর করছে, করোনাকালীন সময়ে পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলা কতটা নিরাপদ। ভালো ফলাফল আসলে পরবর্তীতে অন্যান্য দলও দেশটিতে সফর করবে। কিন্তু কোনো ঝামেলা হলে দীর্ঘ সময়ের জন্য ১৯৯২ বিশ্বকাপ জয়ীরা কাউকে আতিথেয়তা দেওয়ার সুযোগ পাবে না।

সেজন্য পিসিবি চাইছে ইংল্যান্ডকে দিয়ে মুলতান ও রাওয়ালপিন্ডি স্টেডিয়ামকে জৈব সুরক্ষিত পরিবেশের আওতায় আনতে।

sheikh mujib 2020