advertisement
আপনি দেখছেন

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মূল সিরিজে মাঠে নামার আগে নিজেদের মধ্যে লাল এবং সবুজ দলে ভাগ হয়ে দুদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে বাংলাদেশ। কাতুনায়েকেতে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিন ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন লাল দলের ব্যাটসম্যানরা।

minhazul abedin nannuমিনহাজুল আবেদীন নান্নু

ফিফটি হাঁকিয়েছেন তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান এবং নাজমুল হোসেন শান্ত। তামিম ৬৩ রানে এবং সাইফ ৫২ রানে স্বেচ্ছায় মাঠ ছেড়েছেন। মূলত প্রথমদিন ব্যাটসম্যানরা রান পাওয়ায় খুশি জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

শ্রীলঙ্কা থেকে পাঠানো ভিডিও বার্তায় নান্নু বলেন, ‘উইকেটের যে কন্ডিশন তাতে প্রথম ঘণ্টায় ব্যাটিং করা কঠিন ছিল। আমাদের তামিম, সাইফ, শান্ত, মুশফিকরা দারুণ ব্যাটিং করেছে। বোলাররাও যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে অভ্যস্ত হওয়ার জন্য। আমার বিশ্বাস এই অনুশীলনে ম্যাচ থেকে আমরা যথেষ্ট ভালো কিছু ফিডব্যাক পেয়েছি।’

‘এখানকার উইকেটের সাথে পুরোপুরি অভ্যস্ত হওয়ার জন্য খেলোয়াড়দের এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। দুদিনের ম্যাচের প্রথমদিন আমরা শেষ করতে যাচ্ছি আজ। আমার মনে হয় খেলোয়াড়েরা কন্ডিশন এবং উইকেটের সাথে যথেষ্ট অভ্যস্ত হয়েছে। আমাদের টপ অর্ডাররা ভালো ব্যাটিং করেছে। সবমিলিয়ে আমি বলবো এটা ভালো প্রস্তুতিতে সহায়তা করছে।’

প্রথমদিন এবাদত, মুগ্ধরা নিজেদের মেলে ধরতে পারেননি। নান্নুর বিশ্বাস, দ্বিতীয় দিন উইকেটের সাথে নিজেদের মানিয়ে নেবেন বোলাররা, ‘এখানে অনুশীলন ম্যাচে বোলারদের জন্য খুব কঠিন একটা সেশন গিয়েছে। এই উইকেটে বাউন্স যথেষ্ট ভালো, যেহেতু এটা অনেকটা ফ্ল্যাট ট্র্যাকের মতো। হয়তো টেস্টেও এরকম কন্ডিশন হতে পারে, এই গরমের মধ্যে ভালো জায়গায় বল করা, মনযোগ থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আরও একটা দিন বাকি আছে ম্যাচ অনুশীলনে অভ্যস্ত হওয়ার জন্য। আমার বিশ্বাস, বোলাররা খুব তাড়াতাড়ি অভ্যস্ত হতে পারবে, টেস্ট ক্রিকেটের আগে প্রস্তুতির জন্য যথেষ্ট কাজে লাগবে।’