advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে এ বছরের আইপিএল মাঝপথে স্থগিত হয়ে যায়। সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলছে প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় পর্বের খেলা। এখানেই অনুষ্ঠিত হবে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এ যাত্রায় ভারতের মূল দলে ছিলেন না শার্দুল ঠাকুর। তাকে রাখা হয় স্ট্যান্ডবাই দলে।

india celebrating a wicket 1

অবশেষে স্বপ্নপূরণ হলো শার্দুলের। আইপিএলে আলো ছড়িয়ে ভারতের বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দলে ঢুকে পড়লেন এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার। শার্দুলকে দলে নেওয়ার পাশাপাশি অক্ষর প্যাটেলকে রিজার্ভ দলে পাঠানো হয়েছে। দলের এই অদল-বদলের খবরটি আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)।

এবারের আইপিএলের ভারত অংশে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি শার্দুল। তবে আগুন ঝরাচ্ছেন আরব আমিরাতে এসে। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ওপর দাঁড়িয়ে টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছে চেন্নাই সুপার কিংস। মরুর বুকে এখন পর্যন্ত ‌১‌৩টি উইকেট নিয়েছেন শার্দুল। যদিও ব্যাট হাতে খুব একটা সুযোগ পাননি তিনি।

মূলত হার্দিক পান্ডিয়ার ইনজুরিই নির্বাচকদের ভাবাচ্ছে। কারণ চোট শঙ্কায় আছেন ভারতীয় এই অলরাউন্ডার। তাই এবারের আইপিএলে বোলিং করেননি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের এই তারকা। বিশ্বকাপে তেমন কিছু ঘটলে হার্দিকের জায়গায় শার্দুলকে খেলানোর পরিকল্পনা ভারতীয় নির্বাচকদের।

মূল দলের পাশাপাশি জৈব সুরক্ষা বলয়ে আরো বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে রাখছে ভারত। যাতে করে করোনার প্রাদুর্ভাবে দল সংকটে না পড়ে। অতিরিক্ত সেই আট ক্রিকেটার হলেন কৃষ্ণাপ্পা গৌতম, আভেশ খান, উমরান মালিক, শাহবাজ আজমেদ, হার্শাল প্যাটেল, লুকমান মেরিওয়ালা, কর্ন শর্মা ও ভেঙ্কাটেশ আইয়ার।

ভারত বিশ্বকাপ দল: বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, সূর্যকুমার যাদব, রবিন্দ্র জাদেজা, রাহুল চাহার, ঋশভ প্যান্ট (উইকেটরক্ষক), ইশান কিষান (উইকেটরক্ষক), হার্দিক পান্ডিয়া, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, শার্দুল ঠাকুর, ভুবনেশ্বর কুমার, মোহাম্মদ শামি, বরুণ চক্রবর্তী, জাসপ্রিত বুমরাহ।

স্ট্যান্ড বাই: দীপক চাহার, অক্ষর প্যাটেল, শ্রেয়াস আইয়ার।