advertisement
আপনি পড়ছেন

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট চালু করা হয়েছিল যে উদ্দেশ্য নিয়ে, তার অনেকটাই হারিয়ে গেছে। কমে গেছে এ ফরম্যাটের জৌলুশও। এর জন্য ওপেনারদের অতি সাবধানী মনোভাবকেই দায়ী করেছেন ক্যারাবিয়ান জীবন্ত কিংবদন্তি ক্রিস গেইল।

gayle 1চার ছক্কাতে টি-টোয়েন্টি কাঁপাতে পছন্দ করেন গেইল

তার মতে, শুরু থেকেই ধুমধাড়াক্কা খেলার যে প্রবণতা ছিল, তা এখন অনেকটাই কমে গিয়েছে। ব্যাটাররা পাওয়ার প্লের ওভারগুলোতে এখন অনেকটাই সাবধানী হয়ে খেলেন। ফলে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আগের মতো আকর্ষণ নেই।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ব্যাটার ক্রিস গেইল। এখন পর্যন্ত এই ফরম্যাটে সব থেকে বেশি রান তারই। সেই ক্রিস গেইলই তুলোধুনা করলেন এখনকার ওপেনারদের। সোজাসাপটা বললেন, এখনকার দিনের ওপেনাররা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে ‘খুন’ করছেন।

gayle 2টি-টোয়েন্টির অনেকগুলো রেকর্ডই ক্রিস গেইলের

গত আইপিএলে কিছু ওপেনারের স্ট্রাইক রেট দেখলেই বোঝা যাবে গেইলের কথা অমূলক নয়। শুভমান গিল, শিখর ধাওয়ান, দেবদত্ত পাড়িক্কল, রোহিত শর্মা, কুইন্টন ডি’কক কোনো ওপেনারেরই স্ট্রাইক রেট আহামরি নয়। ১১৫-১২০ এর মধ্যেই ঘোরাফেরা করছে তাদের স্ট্রাইক রেট। অথচ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৪৫৩টি ম্যাচ খেলা গেইলের স্ট্রাইক রেট ১৫০ এর কাছাকাছি।

উইন্ডিজের এ ক্রিকেটার এক্ষেত্রে টি-টেন ক্রিকেটের উদাহরণ টেনে বলেন, আমার মনে হয়, এখন যেভাবে টি-টেন ক্রিকেট খেলা হচ্ছে সেভাবেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলা শুরু হয়েছিল। প্রথম ওভার থেকেই তখন ব্যাটাররা আগ্রাসী ব্যাট চালাতো। এখন সেটা অনেক কমে গিয়েছে। এখনকার ওপেনাররা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের বিনোদনকে খুন করে ফেলছে। প্রথম ছয় ওভার অনেক সাবধানী হয়ে খেলছে। শুধু রান করার দিকেই ওরা জোর দিচ্ছে। প্রথম ছয় ওভারে দর্শকরা যে আনন্দ পেত, এখন আর সেটা পায় না। তবে সেই অভাব কিন্তু এখন টি-টেন ক্রিকেট পূরণ করছে।

টি-টোয়েন্টির ওপেনারদের এভাবে খোলসের ভেতরে ঢুকে যাওয়ার কারণটাও একটা বুঝতে পারছেন না গেইল, ‘জানি না কেন প্রথম ছয় ওভারে ওরা খাঁচায় ঢুকে থাকে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট শুরু হওয়ার সময় আমরা প্রথম বল থেকেই মারতাম। এখন কেন এই আগ্রাসন কমে গেল?’