advertisement
আপনি পড়ছেন

স্ট্রাইক রেট নিয়ে সমালোচনা তার পিছু পিছু হাঁটে। গত বছর বিশ্বকাপের আগে তাকে দলে নিতে টিম ম্যানেজমেন্টের অনাগ্রহের খবর জেনে গিয়েছিলেন। অন্দরমহলের খবরে মনে জমেছিল অভিমানের জল। বিশ্বকাপটাই খেলেননি তামিম ইকবাল। বিসিবি সভাপতিকে সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, আর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ফিরবেন না।

tamim iqbal bd cricketerসেঞ্চুরির পর তামিম

গত সপ্তাহে অনেক দেন-দরবারের পর তামিমের কিছুটা সরে এসেছেন নিজের সিদ্ধান্ত থেকে। তারপরও বৃহস্পতিবার পড়ন্ত বিকেলে জানিয়েছিলেন, সহসা ফিরছেন না টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে। ছয় মাসের বিরতি নিয়েছেন। ২০২০ সালের মার্চে সর্বশেষ ম্যাচ, আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি বিরতিটা তাই ২৬ মাসের হয়ে যাচ্ছে। ছয় মাসের বিরতি শেষেও ফেরার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কারণ নিজেই দোয়া করছিলেন, এর মাঝে তরুণরা যেন থিতু হয়, তার ফেরার দরকার না হয়।

আফসোস-আক্ষেপের পারদ কয়েক স্তর উঁচুতে উঠিয়ে দিলেন তামিম। বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে শুক্রবার চট্টগ্রামের সাগরিকায় বুঝিয়ে দিয়েছেন, ফরম্যাটটা খেলতে ভুলে যাননি তিনি। ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরি করেছেন বাঁহাতি ওপেনার। তার দুরন্ত ব্যাটিংয়েই রান বন্যার ম্যাচে সিলেটকে ৯ উইকেটে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিয়েছে ঢাকা।

সাগরিকার রান স্বর্গ উইকেটে ৬৪ বলে অপরাজিত ১১১ রান করেছেন তামিম। ইনিংসে ছিল ১৭টি চার ও ৪টি ছক্কা। এমন ইনিংস দিয়ে গড়েছেন অনেক রেকর্ড।

এবারের বিপিএলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের এটি প্রথম সেঞ্চুরি। বিপিএলে একাধিক সেঞ্চুরি করা বাংলাদেশি প্রথম ও একমাত্র ব্যাটসম্যান তামিম। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বাধিক ৪টি সেঞ্চুরি তার। বিপিএলে এক ইনিংসে রেকর্ড সংখ্যক ১৭টি চার মেরেছেন তিনি। বিপিএলের সব আসর মিলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৭৭টি ছক্কা মেরেছেন তামিম। ইমরুল কায়েসের ৭৪, মুশফিকের ৭৩ ও মাহমুদউল্লাহর ৭০টি ছক্কা রয়েছে।

মুশফিককে টপকে বিপিএলের সর্বোচ্চ রানের মালিকও এখন তামিম। ৭৫ ইনিংসে দুটি সেঞ্চুরি, ২১টি হাফ সেঞ্চুরিতে তার রান ২ হাজার ৪৩৭। সবচেয়ে বেশি হাফ সেঞ্চুরিও তার। ব্যাটিং গড় হয়েছে ৩৭.৪৯, যা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস অপরাজিত ১৪১, সেটিও বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সেরা।

ম্যাচে মোহাম্মদ শাহজাদকে নিয়ে ওপেনিংয়ে ১৭৩ রানের জুটি গড়েছেন তামিম। বিপিএলের ইতিহাসে রান তাড়া করতে গিয়ে এটিই সবচেয়ে বড় ওপেনিং জুটি।