advertisement
আপনি পড়ছেন

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হোম সিরিজের আগে বেশ চাপে পড়ে যান মুশফিকুর রহিম। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সিরিজ শুরুর আগে সিনিয়র ক্রিকেটারদের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, তাদের চাওয়া সিনিয়ররা হাসিমুখে বিদায় নিক। তারা সিদ্ধান্ত নিতে বিলম্ব করলে বিসিবিই সিদ্ধান্ত নিবে।

mushfiq wifeমুশফিক ও তার স্ত্রী মন্ডি

পুরো ইঙ্গিতই ছিল মুশফিকের প্রতি। কারণ চলতি বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দলে এ অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানকে চায় না টিম ম্যানেজমেন্ট। গত বছর বিশ্বকাপের পর এ ফরম্যাট থেকে বাদ পড়েও ছিলেন তিনি।

চাপের অগ্নিগর্ভ থেকেই চট্টগ্রাম টেস্টে বুধবার ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরি করেছেন মুশফিক। সাগরিকার ২২ গজে আজ বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ৫ হাজার রানের মাইলফলকও স্পর্শ করেছেন তিনি। গৌরবের এই অর্জনের দিনটাকে রাঙিয়েছেন সেঞ্চুরিতে।

mushfiq test hundredসেঞ্চুরি করেছেন মুশফিক

বিসিবি সভাপতিকে যেন ব্যাট হাতেই জবাব দিলেন মুশফিক। এর পাশাপাশি স্বামীর অর্জন দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কড়া জবাব দিলেন মুশফিকের স্ত্রী জান্নাতুল কেফায়েত মন্ডি। অভিজ্ঞ এ ব্যাটসম্যানের সেজদারত ছবি দিয়ে ইন্সটাগ্রামে পোস্ট দিয়েছেন মন্ডি।

বিসিবি সভাপতির বক্তব্যকে ইঙ্গিত করে তিনি লিখেছেন, ‘আমরা হাসিমুখেই বিদায় নিবো ইনশাআল্লাহ।’ তবে আপনাদের রিপ্লেসমেন্ট আছে তো? সেদিকেও একটু নজর দিলে বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নয়ন হতো।’

আজ বুধবার চট্টগ্রামে ১০৫ রানের ইনিংস খেলেছেন মুশফিক। তার ক্যারিয়ারে এটিই সবচেয়ে ধীরগতির সেঞ্চুরি। ২৭০ বলে মাত্র ৪টি চারে সেঞ্চুরি করেন তিনি। এর আগে ২০১৭ সালে হায়দরাবাদে ভারতের বিপক্ষে সবচেয়ে শ্লথ গতির সেঞ্চুরি ছিল তার। সেটি ছিল ২৩৫ বলে।

তবে বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে ধীরতম সেঞ্চুরিয়ান মুশফিক নন। সেই রেকর্ড তামিম ইকবালের দখলে। ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ৩১২ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন তামিম। ৩০৯ বলে সেঞ্চুরি আছে তারই বড় ভাই নাফিস ইকবালের।