advertisement
আপনি পড়ছেন

চট্টগ্রামের রান প্রসবা উইকেটে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা প্রথম টেস্ট ড্র হয়েছে। এবার ঢাকায় সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ শুরু হবে আগামীকাল সকাল ১০টায়। হোম অব ক্রিকেট মিরপুর বলেই জয়ের আশা করছে বাংলাদেশ। যদিও এ মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অতীতে তিন ম্যাচ খেলেও জয় নেই টাইগারদের।

muminul haqueমুমিনুল হক

মুমিনুল হককে জয়ের আশা যোগাচ্ছে মিরপুরের উইকেটের আচরণ। ২০১৫ সালের পর এখানে কোনো টেস্টই ড্র হয়নি। এখানে ফলাফল হয় ম্যাচের।

মিরপুরে শেষ আট টেস্টের পাঁচটিতে জিতেছিল বাংলাদেশ দল। তবে এ পরিসংখ্যানে কিছুটা ফাঁকি রয়েছে। কারণ শেষ দুই টেস্টেই হেরেছিল স্বাগতিকরা। গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের রাকিম কর্নওয়াল ও পাকিস্তানের সাজিদ খান গুড়িয়ে দিয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন।

bd sri lanka test drawnড্র হয়েছে চট্টগ্রাম টেস্ট

তারপরও চিরচেনা মিরপুরে জয়টাই প্রার্থিত মুমিনুলদের। আজ রোববার ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের অধিনায়ক বলেছেন, ‘আপনি মিরপুরে খেলুন বা দেশের বাইরে, সুযোগ তো সবসময়ই থাকে। সুযোগটা কীভাবে দেখছেন সেটা হলো সবচেয়ে বড় জিনিস। কন্ডিশন বা সব কিছুর কথা চিন্তা করলে এটা একটা ভালো সুযোগ। সর্বোচ্চ সুযোগ না, তবে এটাও একটা সুযোগ। সুযোগ সবসময় থাকে, এটাও আমাদের জন্য আরেকটা সুযোগ সিরিজ জেতার।’

মিরপুর স্টেডিয়ামে এখন পর্যন্ত ২৩টি টেস্ট খেলা হয়েছে। তাতে প্রতিপক্ষরা জিতেছে ১৩ বার, বাংলাদেশ জয় পেয়েছে ৬ বার, ড্র হয়েছে ৩টি এবং ১টি ম্যাচ বাতিল হয়েছে। সবশেষ ড্র হয়েছে ২০১৫ সালে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট। সেখানে অবশ্য বৃষ্টির অবদান ছিল।

তাই ফলাফল হবে এমন মানসিকতায় প্রস্তুত হচ্ছে বাংলাদেশ দল। মুমিনুল বলেন, ‘মিরপুরে ফলাফল ছাড়া ম্যাচ খুব কমই হয়। শেষ কবে ফলাফল আসেনি বলা কঠিন। বোলিং খুব গুরুত্বপূর্ণ, সাথে ব্যাটিংও। অবশ্যই আমরা পরিকল্পনা করি, কোন জিনিস নিয়ে কাজ করলে জেতার সম্ভাবনা বেশি থাকবে।’