advertisement
আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর পর টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও বলেছেন, দেশের ক্রিকেটে টেস্ট সংস্কৃতি নেই। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও বুধবার এনিয়ে-বিনিয়ে সাকিবের কথায় সায় দিলেন। তবে একটা সিরিজ হারলেই হতাশা ঝাড়তে হবে, দোষ খুঁজে বের করতে হবে, এমন অবস্থানের বিপক্ষে তিনি।

domingo paponনাজমুল হাসান পাপন (ডানে)

টেস্ট সংস্কৃতি নিয়ে সাকিবের মন্তব্য সম্পর্কে বুধবার বিসিবির চতুর্থ বোর্ড সভা শেষে পাপন বলেন, ‘সাকিব যা বলল সাকিবের ভাষ্য, আমি বলতে চাচ্ছি সব মিলিয়ে টেস্ট সংস্কৃতি আমাদের মাঝে নেই। খেলার সুযোগটা পেল কোথায় আগে? এখন খেলা শুরু করেছে, আমরা বাইরে গিয়েও জেতা শুরু করেছি তাই বলে কি সব জিতব নাকি?’

ধারাবাহিকভাবে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে খারাপ করছে বাংলাদেশ দল। তাই টেস্টের টানা ব্যর্থতার কারণ খুঁজতে ওয়ার্কিং কমিটি করছে বিসিবি, ‘টানা খেলার কারণে ওদের তো ডেভেলপ করার সুযোগ পাচ্ছি না। কিন্তু সমাধান খুঁজতে একটা ওয়ার্কিং কমিটি করা হয়েছে। টেস্ট এত সহজ না, কোনো দেশেই। সময় লাগে।’

পরিসংখ্যান তুলে ধরে টাইগারদের ব্যর্থতা অন্য দেশগুলোর সঙ্গেও তুলনা করলেন পাপন, ‘প্রথম ৫০ বছরে ১৯৬ ম্যাচ খেলে ভারত মাত্র ৩৫টি জিতেছে। নিউজিল্যান্ড এখন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। প্রথম টেস্ট জিততে ২৬ বছর লেগেছে। বাংলাদেশের সাথে খেলত কে? জিম্বাবুয়ে আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়া কেউ খেলত নাকি? এখন তো কঠিন প্রতিপক্ষের সাথে খেলছি। আমরা তো তেমন খেলিনি, সুযোগ পাইনি। এখন সুযোগ আসছে। সুযোগ আসার সাথে সাথে খুব ভালো করব ধরে নিলে ভুল হবে।’

গত ১০ বছর ধরে বিসিবির সভাপতি পদে আছেন পাপন। নিজের মেয়াদে টেস্টের পরিসংখ্যানও জানালেন তিনি, ‘২০১২ থেকে এখন পর্যন্ত, ১০ বছরে ৬১টি টেস্ট খেলেছি। এর মধ্যে ১৩টি জিতেছি, ১১টি ড্র, ৩৭টি হেরেছি। জয়ের হার ২১ শতাংশ। একটা ম্যাচ, একটা সিরিজ হারলে সব হতাশ হয়ে যাব, আর যা খুশি বলব, দোষ খুঁজব- এটা ঠিক না।’