advertisement
আপনি পড়ছেন

বিশ্বকাপের মহড়া বলা হয় ফিফা কনফেডারেশন্স কাপকে। আর বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি ‘মহড়া’ দিয়ে রাশিয়া গেছে দ্বিতীয় সারির একটা দল নিয়ে। জার্মান কোচ জোয়াকিম লো বলেছিলেন টুর্নামেন্টটা উপভোগ করতে চায় ‘অচেনা’ জার্মানি। এই উপভোগের মন্ত্র নিয়ে খেলেই কিনা চ্যাম্পিয়ন ‘অচেনা’ জার্মানি! গতকাল রাতে ফিফা কনফেডারেশন কাপের ফাইনালে চিলিকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে জার্মানি।

germany champion FIFA confederations cup

যাতে একটা ইতিহাসেও নাম উঠল জার্মানদের। সেই ১৯৯১ সাল থেকে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে কনফেডারেশনস কাপ। কিন্তু আগে কখনোই ‘মিনি বিশ্বকাপে’র শিরোপা জেতা হয়নি জার্মানির। এবার প্রথমবারের মতো ফিফা কনফেডারেশনস চ্যাম্পিয়ন হতে পাড়ল দলটি।

ইতিহাস হতে পাড়ত চিলিরও। শিরোপা জেতা তো দূরের থাক, চিলি ফাইনালেই উঠল এই প্রথম। শিরোপা জিতলে সেটা বড় সাফল্যই হতো টানা দুইবার কোপা আমেরিকা জেতা দলটার জন্য। সাফল্যটা ধরার জন্য ফাইনালে সর্বোচ্চটা দিয়েই চেষ্টা চালিয়েছেন অবশ্য অ্যালেক্সিস সানচেজ, আর্তারো ভিদাল, ক্লদিও ব্রাভোরা।

কিন্তু অচেনা জার্মানি হঠাৎ গোছালো হয়ে উঠাতে সেটা চেষ্টা কাজে আসেনি। ম্যাচে ভিদাল-সানচেজের নেতৃত্বে বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করেছিল চিলি। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেনি একটিও। অপর দিকে গোছালো আক্রমনে জার্মানিও কাঁপিয়ে দিচ্ছিল চিলির রক্ষণ।

তবে জার্মানির একমাত্র গোলটাতে অবশ্য ভাগ্যেরও ছোয়া আছে। ম্যাচের ২০ মিনিটে জার্মানির একমাত্র গোলটা করেন লার্স স্টিনডল। চিলি ডিফেন্ডারদের ভুলেই বল পেয়ে যান অনেকটা ফাঁকায় দাঁড়ানো স্টিনডল। তারপর ব্রাভোকে ফাঁকি দিতে ভুল করেননি জার্মানির তরুণ ফরোয়ার্ড। এই গোলটাই শেষ পর্যন্ত জার্মানিকে ইতিহাসের অংশ বানিয়ে দিয়েছে।