advertisement
আপনি পড়ছেন

২০১৩ সালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সান্তোস থেকে নেইমার যখন বার্সেলোনায় যোগ দিলেন কতজন কত কথাই বলছিলেন। মেসি নেইমার দুইজন দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার বলে একে অপরকে সহ্য করতে পারবেন না, আরো কত কথা। কিন্তু দিন যত গড়িয়েছে বার্সেলোনার জার্সিতে মানিক-রতনে পরিণত হয়েছিলেন লিওনেল মেসি ও নেইমার। সেই সম্পর্কটা হয়তো ছিন্ন হয়েই যাচ্ছে এবার!

messi neymar

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিশ্বফুটবলের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় নেইমারের বার্সেলোনা ছাড়ার গুঞ্জন। নেইমার নিজে টু-শব্দটিও করেনি এই বিষয়ে। কিন্তু ভেতরে ভেতরে নাকি প্রায় সব কিছুই চূড়ান্ত! ইএসপিএন এফসি জানাচ্ছে, পিএসজিতে যাওয়ার জন্য নাকি সম্মাতি দিয়েছেন নেইমার নিজেও।

সংবাদ মাধ্যমটির খবর যদি সত্যি হয় তাহলে বলেই দেওয়া যায় মেসি-নেইমারের বন্ধন শেষ হয়েই যাচ্ছে। কয়েক দিন পর থেকে বার্সেলোনা নয় পিএসজির জার্সিতে হয়তো মাঠে দেখা যাবে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টারকে। ইএসপিএন এফসি বলছে, নেইমারের সাথে নাকি অন্তত চার বছরের চুক্তি করতে যাচ্ছে পিএসজি।

কড়িকড়ি টাকা ঢেলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সাফল্য পাচ্ছে না পিএসজি। সে কারণে বিশ্বসেরাদের একজনকে দলে ভেড়াতে অনেক আগে থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে প্যারিসের দলটি। নেইমারের উপর পিএসজির নজড় অনেক দিনের। সেটা আন্দাজ করতে পেরেই নতুন চুক্তিতে নেইমারের রিলিজ ক্লজ বাড়িয়ে ২২২ মিলিয়ন ইউরো করেছিল বার্সেলোনা। মানে বাংলাদেশি টাকা দুই হাজার কোটি টাকার মতো।

কিন্তু এই পরিমান টাকা দিয়েও নেইমারকে দলে টানতে সব রকমের আয়োজন করে যাচ্ছে পিএসজি। সান্তোস থেকে নেইমারকে নিয়ে আসতে নেইমারের বাবাকে বাড়তি অর্থ দিয়েছিল বার্সেলোনা। পিএসজিও নাকি এই পন্থা অবলম্বন করতে যাচ্ছে।

এদিকে, গুঞ্জন উঠার প্রথম ভাগে বার্সেলোনার পক্ষ থেকে বলা হচ্ছিল নেইমার কোথাও যাচ্ছেন না। তবে এখন সুর নরম হয়েছে তাদেরও। বার্সেলোনা মিডফিল্ডার সার্জিও বুসকেট বলেছেন, ‘বার্সেলোনার মতো পরিবেশ কোথাও পাবে না নেইমার।’ শুধু বুসকেট নয়, বার্সা না ছাড়তে নেইমারকে বুঝানোর চেষ্টা করছেন কাতালান ক্লাবটির প্রায় সবাই। তবে ব্রাজিল তারকা বুঝবেন তো!