advertisement
আপনি পড়ছেন

নেইমার শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনা ছেড়ে চলেই যাবেন কিনা তার নিশ্চয়তা এখনো পাওয়া যায়নি। তবে যদি চলেই যান তাহলে তার শূন্যস্থান তো পূরণ করতে হবে বার্সেলোনাকে। এই শূন্যস্থান পূরণে বিভিন্ন নাম এসেছে এযাবৎ। লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার ফিলিপে কুতিনহো, জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো দিবালার নাম নিয়ে আলোচনা হয়েছে বেশি। এবার আলোচনায় নতুন নাম অ্যান্টনি গ্রিজম্যান।

antoine griezmann neymar

নেইমারের শূন্যস্থান পূরণ করতে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ফরাসি ফরোয়ার্ডের দিকে চোখ বার্সেলোনার। কয়েক দিন আগেই গ্রিজমানের অ্যাটলেটিকো ছেড়ে যাওয়ার খবর বেরিয়েছিল। স্পেনের ক্লাবটির সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথে চুক্তি সেরে ফেলেছেন গ্রিজমান, এমন খবর বেরিয়েছিল।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত ‘দলবদলের বাজারে কত গুজবই রটে’ এই প্রবাদে শেষ হয়েছে গ্রিজমানের ম্যানইউ যাত্রা। ফরাসি ফরোয়ার্ড বলেছেন, আরো এক বছর থাকতে চান অ্যাটলেটিকোতে। কিন্তু বার্সেলোনা থেকে প্রস্তাব গেলে ভেবে না দেখে কি আর পারবেন গ্রিজমান! মেসি-রোনালদোদের পাশে খেলতে চান এমন কথা অনেকবারই বলেছেন ফরাসি তারকা।

গ্রিজমানকে অ্যাটলেটিকো থেকে ভাগিয়ে নিতে বেশি কষ্ট করতে হবে না বার্সেলোনার। অ্যাটলেটিকো স্বাভাবিক ভাবেই ছাড়তে চাইবে না, তবে বাই আউট ক্লজের অর্থ পরিশোধ করলে আর গ্রিজমানকে রাজি করাতে পারলে সেই বাঁধা এক ফুৎকারে উড়ে যাবে। অ্যাটলেটিকোতে গ্রিজমানের বাই আউট ক্লজ নাকি ১০০ মিলিয়ন ইউরোর মতো। অঙ্কটা বার্সার জন্য মোটেও বড় নয়।

গত কয়েক মৌসুম ধরেই অ্যাটলেটিকোর হয়ে দারুণ খেলে যাচ্ছেন ২৬ বছর বয়সী গ্রিজমান। অ্যাটলেটিকোর প্রধান ভরসাও এই ফরাসি তারকা। গত ইউরোতে ফ্রান্স যে ফাইনাল পর্যন্ত গেলো সেটা গ্রিজমানের কাঁধে সওয়ার হয়েই। তাছাড়া স্প্যানিশ লা লিগায় খেলেন বলে মানিয়ে নেওয়ার সময়ও তেমন দিতে হবে না গ্রিজমানকে।

দিবালা বা কুতিনহোদের হয়তো মানিয়ে নিতে কিছুটা সমস্যা হতে পারে। কিন্তু গ্রিজমান এই লিগেই খেলেন বলে শুরু থেকেই তার কাছে প্রত্যাশা করতে পারবে বার্সেলোনা। এই কারণেও হয়তো গ্রিজমানকে নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে কাতালান ক্লাবটি!