advertisement
আপনি পড়ছেন

নেইমারের দলবদলটা ক্লাব ফুটবলের চিত্র অনেকটা পাল্টে দিয়েছে। ‘টাকাই কিনা মেলে’ প্রবাদের একটা প্রমাণ নেইমারের এই দলবদল। ২২২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে ভাগিয়ে নিল পিএসজি। সব মিলিয়ে এই দলবদলের অঙ্ক নাকি প্রায় ৫০০ মিলিয়ন ইউরো! নেইমারের জন্য কেউ এতো টাকা ঢাললে মেসিকেও তো তাহলে ভাগিয়ে নেওয়া সম্ভব বার্সেলোনা থেকে! লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লাপ এমনই মনে করছেন।

messi scores against atletico madrid as barcelona on top of la liga

ক্লপের মতে, নেইমারের জন্য ২২২ মিলিয়ন ইউরোর বাই আউট ক্লজ পরিশোধ করলে মেসির জন্য ৩০০ মিলিয়ন ইউরোও পরিশোধ করতে চাইবে কোন ক্লাব। কেউ হয়তো এই চেষ্টায় লেগেও যেতে পারে! ক্লপ বলছেন মেসিকেও ভাগিয়ে নেওয়া খুবই সম্ভব, ‘এটা এখন খুবই সম্ভব। মাস খানেক আগেও এটা অসম্ভব মনে হতো। এখন তো মনে হচ্ছে না।’

মূলত দলবদলে অর্থের এই ছড়াছড়ি কমানোর কথা বলতেই মেসির প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন ক্লপ। লিভারপুল কোচের মতে, অর্থের এতো ছড়াছাড়ির একটা সীমারেখা থাকা উচিত, ‘বড় বড় ক্লাবগুলো সিদ্ধান্ত নিতে পারে এটা যে, দলবদলে অর্থের ছড়াছড়িতে লিমিট করা যায় কিনা। এটা ১৫০ মিলিয়ন বা ৫৫০ মিলিয়ন অথবা অন্য কিছু হতে পারে।’

এ দিকে, দলবদলে এই অর্থের ছড়াছড়িতে ক্লপ নিজেও ঝামেলায় পড়েছেন। বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে পিএসজি ভাগিয়ে নেওয়ার পর তার শূন্যস্থান পূরণের জন্য কুতিনহোকে চাইছে বার্সা। কিন্তু কুতিনহো অনেকদিন ধরে লিভারপুলের প্রধান খেলোয়াড়। লিভারপুল কোচ কিছুতেই তাই হারাতে চাইছেন না কুতিনহোকে।

ক্লপ আবারো বার্সেলোনার উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘কুতিনহো বিক্রির জন্য নয়।’ তবে নেইমারের শূন্যতা পূরণের জন্য বার্সেলোনা লেগেই আছে কুতিনহোর পেছনে।