advertisement
আপনি পড়ছেন

বিশ্বের অনেক রথি-মহারথী অবসর ভেঙে ফিরেছেন আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে। এই মুহূর্তে ফুটবলে সবচেয়ে বড় দুটি উদাহরণ হতে পারেন লিওনেল মেসি ও জিয়ানলুইজি বুফন। এবার তাদের পদাঙ্ক অনুসরণ করতে যাচ্ছেন সুইডেন ফুটবলের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ।

zlatan ibrahimovich might return to international football

শুক্রবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ার আভাস দিয়েছেন এই স্ট্রাইকার। একই দিনে জাতীয় দলে ফেরার ইঙ্গিতও দিলেন। আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তিনি। সুইডেন কোচ জানে অ্যান্ডারসন আপত্তি না জানালে বিশ্বমঞ্চে ফের হলুদ জার্সিতে দেখা যাবে ৩৬ বছর বয়সী এই তারকা ফুটবলারকে।

আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফেরার ইঙ্গিত দিয়ে বার্সেলোনার সাবেক স্ট্রাইকার সুইডিস প্রেসকে বলেছেন, ‘আমি জাতীয় দলকে মিস করছি। আমি যা (ফিরতে) চাই, তাই করি। এখনো মনে করি যে আমি ভালো পারফর্ম করতে পারি।’

zlatan ibrahimovich might return to international football 1

বয়স যে শুধুই একটা সংখ্যা সেটা অবশ্য পারফরম্যান্স দিয়েই প্রমাণ করেছেন সুইডেনের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা। পিএসজি ছেড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে এসে ইব্রা দেখিয়েছেন আগুন ফর্ম। তার দুর্দান্ত নৈপুণ্যের সৌজন্যে গত মৌসুমে ডাবলস জিতেছিল ইংলিশ ক্লাবটি।

কিন্তু মৌসুম শেষ হওয়ার আগেই পড়েন ইনজুরিতে। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট গত ১২ মাস ধরে ভোগাচ্ছে তাকে। তবে ফিট হয়ে মাঠে ফিরলেও হোসে মরিনহোর একাদশে অনিয়মিত তিনি। ইংলিশ লিগে এই মৌসুমে মোটে পাঁচটি ম্যাচ খেলেছেন ইব্রা। শেষবার তাকে মাঠে দেখা গেছে গত ডিসেম্বরে। বার্নলির সঙ্গে ম্যাচটা অবশ্য রেড ডেভিলসরা ড্র করেছিল ২-২ গোলে।

২০১৬ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের পরই আচমকা জাতীয় দলকে বিদায় জানান ইব্রা। তাকে ছাড়াই রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করে সুইডেন। প্লে-অফে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে ১-০ গোলে হারিয়ে তারা জায়গা করে নেয় বিশ্বমঞ্চে।

তখনই সামাজিক যোগযোগমাধ্যম টুইটারে ফেরার একটা আভাস দিয়েছিলেন ইব্রা। অবশেষে মুখ ফুটেই বলে দিলেন ফেরার আগ্রহের কথাটা। ১১৬ ম্যাচে ৬২ গোল করা ইব্রাকে শেষ পর্যন্ত সুইডেন কোচ ডাকবেন কিনা আপাতত অপেক্ষা সেটারই।

১৮ জুন দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলবে সুইডেন। ‘এফ’ গ্রুপের বাকি দুই ম্যাচে সুইডিসদের প্রতিপক্ষ মেক্সিকো এবং জার্মানি। শেষ দলটার কাছে ইব্রা অবশ্য আতঙ্কের এক নাম। কারণ ২০১০ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ৪ গোলে এগিয়ে থেকেও জার্মানি যে জয়বঞ্চিত হয়েছিলেন সেটার নেতৃত্বটা যে ইব্রা-ই দিয়েছিলেন! ম্যাচটা ড্র হয়েছিল ৪-৪ গোলে!