advertisement
আপনি পড়ছেন

অতর্কিত ইনজুরি হ্যারি কেনের বিশ্বকাপ ভাগ্য ফেলে দিয়েছিল অনিশ্চয়তার মুখে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বড় ধরণের কোনো দুসংবাদ শুনতে হয়নি ইংলিশ স্ট্রাইকারকে। অল্পতেই সুস্থ হয়ে উঠছেন টনেনহাম প্রাণভোমরা।

harry kane tottenham footballer

এই মাসের শুরুর দিকে গোড়ালির চোট পেয়ে মাঠের বাইরে ছিটকে গিয়েছিলেন কেন। ছোটখাটো একটা অস্ত্রোপচারও করতে হয়েছে তাকে। পরে কয়েকদিন স্ট্রেচারে ভর দিয়ে অলস সময় পার করেছেন ইংলিশ সেনসেশন।

এই এক মাসে তিনটি ম্যাচ মিস করেছেন তিনি। এফএ কাপে সোয়ানসি সিটি ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি। ইতালি এবং নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে জাতীয় দলের ম্যাচেও কেন ছিলেন দর্শক সারিতে। অবেশেষ মাঠে ফেরার সময় হয়েছে ২৪ বছর বয়সী এই তারকার।

পরশু ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী চেলসির বিপক্ষে মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে তার ফেরার খবর দিলেন টটেনহাম কোচ মাওরিসিও পচেত্তিনো। বৃহস্পতিবার তিনি বলেছেন, ‘প্রতিদিনই ওর (হ্যারি কেন) উন্নতি হচ্ছে। আমি আপনাদের ‘না’ বলব না; হ্যাঁ, আগামী সপ্তাহে (রোববার) ও মাঠে ফিরছে।’

হ্যারি কেন দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠায় অনেকেই বিস্মিত হয়েছেন। তবে আশ্বস্ত করেছিলেন টটেনহাম। অবশেষে কোচের পূর্বাভাসটাই সত্যি হতে চলেছে। পচেত্তিনো এখন বলতে পারছেন, ‘বোর্নমুথ ম্যাচের পর সবাই ভেবেছিল ও দীর্ঘদিনের জন্য মাঠের বাইরে থাকবে। কিন্তু আমরা ইতিবাচক ছিলাম। জানতাম ও দ্রুত সেরে উঠবে।’

ইংলিশ লিগে ৮১ পয়েন্ট নিয়ে ইতোমধ্যেই উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেছে ম্যানচেস্টার সিটি। তাদের পেছনে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড (৬৫), লিভারপুল (৬৩), টটেনহাম (৬১), চেলসি (৫৬) ও আর্সেনাল (৪৮) এখনো লড়ছে ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতার টিকিটের জন্য।