advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

রিয়াল মাদ্রিদের অনেক ফুটবলারই জিতেছেন ব্যালন ডি’অর। গত ১১ বছরে ছয়বারই ব্যক্তিগত নৈপুণ্যের শ্রেষ্ঠত্বের পুরস্কার পেয়েছেন রিয়ালের কোনো ফুটবলার। সান্তিয়াগো বার্নার্ব্যুতে থাকাকালীন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো পাঁচবার জিতেছিলেন স্বপ্নের এই ট্রফি। ক্লাব সতীর্থের হাতে পুরস্কার দেখে কিছুটা হলেও সান্ত্বনা পেয়েছেন সার্জিও রামোস।

luis figo and sergio ramos

শেষবার তো মেসি-রোনালদোর রাজত্ব গুঁড়িয়ে দিয়ে বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন রিয়ালের আরেক ফুটবলার লুকা মডরিচ। ক্রোট তারকার সেরা হওয়ার পেছনে রামোসেরও অবদান আছে। সতীর্থদের এই অবদানের কথা স্বীকারও করেছেন মডরিচ। কিন্তু রামোসেরও এই পুরস্কার জয়ের সামর্থ্য আছে।

এমনটাই দাবি করলেন রিয়ালের আরেক কিংবদন্তি লুইস ফিগো। বৃহস্পতিবার পর্তুগালের সাবেক অধিনায়ক স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কাকে বলেছেন, ‘এটা পরিষ্কার যে, সার্জিও রামোস ব্যালন ডি’অর জয়ের দাবিদার। ও দুর্দান্ত একজন ডিফেন্ডার।’

সাধারণত ফরওয়ার্ড বা মিডফিল্ডাররাই জিতে থাকেন ব্যালন ডি’অর পুরস্কার। ১৩ বছর আগে শেষবার কোনো ডিফেন্ডার হিসেবে ইতালির ফ্যাবিও ক্যানাভারো পেয়েছিলেন এই স্বীকৃতি। রক্ষণ প্রহরীদের বর্ষসেরা হওয়া কতটা কঠিন সেটা বলে দিচ্ছে এই তথ্যটাই।

ফিগো যথার্থই বললেন, ‘একজন ডিফেন্ডার একজন গোলরক্ষকের মতো। ডিফেন্ডারের পক্ষে এই পুরস্কার জেতা অনেক কঠিন। কিন্তু ক্যানাভারো এটা পেয়েছিলেন। এটা আসলে প্রত্যেক বছরের পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে। কিন্তু আপনি যদি একক গুণ হিসেব করেন, তাহলে অবশ্যই রামোসের এটা জেতা উচিত।’

sheikh mujib 2020