advertisement
আপনি দেখছেন

পেশাদার ক্লাব ফুটবলে রেকর্ডের আরেক নাম লিওনেল মেসি। প্রতিনিয়ত আর্জেন্টাইন সুপারস্টার করছেন গোল; গড়ছেন নতুন নতুন রেকর্ড। কখনো কখনো পেছনে ফেলছেন কিংবদন্তিদের। তবু মেসিকে নিয়ে পুরনো একটা অভিযোগ আছে। বার্সেলোনা অধিনায়ক নাকি জাভি- ইনিয়েস্তাদের ছাড়া গোল করতে পারেন না!

messi barcelona captain

বার্সেলোনা অধ্যায়ে অসংখ্য গোল করেছেন মেসি। ওসব গোলের নেপথ্যে আসল নায়ক হিসেবে কাজ করেছেন জাভি হার্নান্দেজ, আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা এবং নেইমার জুনিয়র- নিন্দুকদের অভিযোগ এমনই। কিন্তু এই ত্রয়ী বার্সা ছেড়ে গেলেও মেসির গোলবন্যা আর থামেনি। বরং আগের চেয়ে আরো বিধ্বংসী হয়ে উঠেছেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

তাতেই প্রমাণ হয়ে যায়, গোল করার জন্য বিশেষ কাউকে প্রয়োজন হয় না মেসির। যে কাউকে সতীর্থ হিসেবে পেলেই তার সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেন 'এলএমটেন'। কথাটা যে ফাঁকা বুলি নয় সেটা প্রমাণ করে দিচ্ছে 'বার্সা ইউনিভার্সাল'। সোমবার রাতে টুইটার পেজে একটি পরিসংখ্যান পোস্ট করেছে তারা।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে জাভি, ইনিয়েস্তা কিংবা নেইমার যাওয়ার পরেও মেসি আগের মতোই নিয়মিত গোল করে যাচ্ছেন। মেসির একটি ছবি পোস্ট করে পরিসংখ্যান সাজিয়েছে বার্সা ইউনিভার্স। পরিসংখ্যানের পোস্টটিতে চারটি ক্যাপশন দিয়েছে তারা।

প্রথম ক্যাপশন: 'জাভিকে ছাড়া পারফর্ম করতে পারেন না মেসি।' অথচ দেখা যাচ্ছে, বার্সেলোনা ছেড়ে জাভি চলে যাওয়ার পর ১৯৩ ম্যাচে ১৮১টি গোল করেছেন মেসি।

দ্বিতীয় ক্যাপশন: 'নেইমারকে ছাড়া খেলতে পারেন না মেসি।' অথচ ২০১৭ সালে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার ন্যু ক্যাম্প ছাড়ার পর ৯২ ম্যাচে ৮২টি গোল করেছেন মেসি।

তৃতীয় ক্যাপশন: 'মেসি ইনিয়েস্তাকে ছাড়া গোল করতে পারেন না।' কিন্তু পরিসংখ্যান বলছে গত মৌসুম শেষে ইনিয়েস্তা যাওয়ার পর ৩৮ ম্যাচে বার্সার জার্সিতে ৪১টি গোল করেছেন মেসি।

চতুর্থ তথা সবশেষ ক্যাপশন: 'জাভি, ইনিয়েস্তা এবং নেইমারকে ছাড়া খেলতে পারেন না মেসি।' এই ত্রয়ীর সঙ্গে মেসি ৩৮টি ম্যাচে ৪১টি গোল করেছেন মেসি।

এসব পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে মেসি সত্যিকারের জাদুকর; গোলমেশিন। গোল করার জন্য বিশ্বমানের প্লে-মেকারের সহায়তা লাগে না তার। মাঠে যে কারোর সঙ্গেই নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে পারেন মেসি।