আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 21 মিনিট আগে

এগিয়ে থেকেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারল না প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। উল্টো হারের শঙ্কায় পড়েছিল টমাস টুখেলের দল। রোববার রাতে স্ট্রসবার্গের বিপক্ষে শেষ সময়ের গোলে কোনোরকম হার এড়িয়েছে পিএসজি।

psg draw with strasbourg

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের চলতি মৌসুমে প্রথম সাক্ষাতেও পিএসজিকে রুখে দিয়েছিল স্ট্রসবার্গ (১-১)। সেই ম্যাচে চোট পেয়ে মাঠের বাইরে ছিটকে গিয়েছিলেন প্রাণভোমরা নেইমার। দুই দফা ইনজুরির পর ব্রাজিলিয়ান তারকা ফিরে এসেছেন দলে। কিন্তু চোট শঙ্কা এড়াতে কাল নেইমারকে মাঠে নামাননি পিএসজি কোচ টুখেল।

ব্রাজিলিয়ান তারকার অনুপস্থিতির ম্যাচে পিএসজিকে আরেকবার দুঃস্বপ্ন উপহার দিল স্ট্রসবার্গ। অথচ এই ম্যাচে প্রতিশোধ নেওয়ার সুযোগ ছিল পিএসজির। কিন্তু সুযোগ হাতছাড়া করল তারা। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেও দলকে জেতাতে পারলেন না কিলিয়ান এমবাপ্পে।

চলতি আসরে এনিয়ে তিনটি ড্র করল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। প্যারিসের ম্যাচটা জিততে পারলে আট ম্যাচ বাকি থাকতেই লিগ শিরোপাও নিশ্চিত করতে পারতো পিএসজি। তাই চ্যাম্পিয়নশিপ নিশ্চিতের জন্য অন্তত আরো এক ম্যাচ অপেক্ষা করতে হবে তাদের।

৩০ ম্যাচে ২৬ জয়ে শীর্ষে থাকা পিএসজির পয়েন্ট ৮১। তাদের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে ২০ পয়েন্ট পিছিয়ে যথারীতি দুইয়ে আছে লিলঁ। তাদের পেছনে আছে যথাক্রমে অলিম্পিক লিওঁ (৫৬), সেত অ্যাঁত (৫০) ও অলিম্পিক মার্শেই (৪৮)। তিনটি দলই সমান ৩১টি ম্যাচ খেলেছে।

ঘরের মাঠ পার্ক ডু প্রিন্সেসে ১৩ মিনিটে এরিক মাক্সিম চুপো-মোটিংয়ের গোলে লিড নেয় পিএসজি। লিডটা বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি তারা। ২৬ মিনিটে পিএসজির জাল কাঁপিয়ে সমতায় ফেরে স্ট্রসবার্গ। গোল করেন আফ্রিকান তারকা নুনো দ্য কস্টা। বিরতির আগেই অ্যান্তনির দুর্দান্ত গোলে এগিয়ে যায় অতিথি শিবির।

সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে পিএসজি। ৭০ মিনিটে ম্যাচে ফিরতে পারতো তারা। ভাগ্য বিমুখ করায় সেটা তখন সম্ভব হয়নি। অবিশ্বাস্য একটা গোল বঞ্চিত হয়েছেন ড্যানি আলভেজ। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারের বাইসাইকেল কিকটা ফিরে আসে স্ট্রসবার্গেল ক্রসবারে প্রতিহত হয়ে।

সেই দুঃখ অবশ্য একটু পরই ঘুচিয়েছে পিএসজি। ৮২ মিনিটে স্কোর লাইন ২-২ করে স্বাগতিকরা। পিএসজি সমতায় ফিরেছে জার্মান রসায়নে। জুলিয়ান ড্র্যাক্সলারের কর্নার কিক থেকে হেডে গোল করেন টিলো কেরার। গোলবঞ্চিত আলভেজ ম্যাচের নায়ক হতে পারতেন। কিন্তু ইনজুরি টাইমে আবার সহজ গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেছেন তিনি।