advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 48 মিনিট আগে

জিতলেই নক আউট পর্ব নিশ্চিত হয়ে যেত লিভারপুল ও নাপোলির। কিন্তু জিততে পারল না কেউ। পয়েন্ট ভাগাভাগি করল জায়ান্ট দুটি দল। তাতে একে অন্যের অপেক্ষা বাড়িয়ে দিল তারা। বুধবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের বিগ ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে ইংলিশ ও ইতালিয়ান ক্লাব দুটি।

liverpool goal celebration over napoli

গ্রুপপর্বের গণ্ডি পাড়ি দেওয়ার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হলো চেলসিরও। কাল রাতে ভ্যালেন্সিয়ার মাঠে ২-২ গোলে ড্র করেছে লন্ডনের ক্লাবটি। ’এইচ’ গ্রুপে দুই দলেরই অর্জন সমান আট পয়েন্ট। তবে গোলগড়ে পিছিয়ে তিনে নেমে গেছে চেলসি। দুইয়ে উঠেছে ভ্যালেন্সিয়া। ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে আয়াক্স।

ঘরের মাঠ অ্যানফিল্ডে ২১ মিনিটে গোল হজম করে বসে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। শুরুতে গোল করে নাপোলিকে উচ্ছ্বাসে ভাসান ড্রিস মের্টেন্স। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৫ মিনিটে জেমস মিলনারের ক্রসে দেইয়ান লভরেনের হেডে সমতায় ফেরে অল রেডরা। ম্যাচে দ্বিতীয়বার উল্লাসের উপলক্ষ্য পায়নি কোনো দল।

তাতে প্রতিশোধের সুযোগ হাতছাড়া হলো লিভারপুলের। প্রথম লেগে এই নাপোলির কাছে ২-০ গোলে হেরে শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু করেছিল অল রেডরা। সেই ইতালিয়ান ক্লাবটিই টানা তিন জয়ের ছন্দটা কেড়ে নিল ইংলিশ জায়ান্টদের। পাঁচ ম্যাচে লিভারপুলের সংগ্রহ এখন ১০ পয়েন্ট। এক পয়েন্ট পিছিয়ে তাদের কাঁধে তপ্ত নিঃশ্বাস ফেলছে নাপোলি। তিনে থাকা সালজবার্জ সাত পয়েন্ট নিয়ে কিছুটা হলেও আশা বাঁচিয়ে রেখেছে।

আশায় থাকতে হলো ফেভারিট আরেক দল চেলসিকেও। ভ্যালেন্সিয়ার মাঠে জয়ের সুবাস পেয়েও ড্রয়ের হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হলো তাদের। চার গোলের ম্যাচের শুরুর দিকটায় ছিল গোল মিসের মহড়া। অবশেষে ৪০ মিনিটে কার্লোস সলের গোলে লিড নেয় স্প্যানিশ জায়ান্ট ভ্যালেন্সিয়া।

পাল্টা জবাব দিতে এক মিনিটও সময় নেয়নি চেলসি। মাতেও কোভাসিচ কুড়ি গজ শট থেকে সমতায় ফেরান পশ্চিম লন্ডনের ক্লাবটি। ৫০ মিনিটে গোল করে চেলসির জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলেন পুলিসিচ। কিন্তু ৮২ মিনিটে তাতের জয়ের স্বপ্ন ফিকে করে দেয় ভ্যালেন্সিয়া।

স্কোর লাইন ২-২ করেন ওয়াস। ম্যাচের ফলটা ভিন্ন হতে পারতো। হোসে গায়াকে ডি-বক্সে ফাউল করায় পেনাল্টি পায় ভ্যালেন্সিয়া। সিদ্ধান্তটা রীতিমতো বিতর্কের ঝড় তুলল। বিতর্কিত এই পেনাল্টি আবার ঠেকিয়ে দেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি গোলরক্ষক কেপা। খলনায়ক বনে গেলেন স্পট কিক থেকে শট নেওয়া ড্যানি পারেহো।

sheikh mujib 2020