advertisement
আপনি দেখছেন

অনুমানটাই সত্যি হয়েছে। এ বছর ব্যালন ডি’অরের সোনালি ট্রফি জিততে পারেননি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর স্বীকৃতিসরূপ বর্ষসেরা হয়েছেন লিওনেল মেসি। রানারআপও হতে পারেননি রোনালদো। তৃতীয় সেরা হয়েছেন তিনি। দ্বিতীয় হয়েছেন লিভারপুলের ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইক।

cristiano ronaldo juventus sassuolo match

রোনালদোর এজেন্ট জর্জ মেন্ডিস মনে করেন রিয়াল মাদ্রিদে থাকলে এ বছর ব্যালন ডি’অর জিততেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। মেন্ডিসের দাবি- রোনালদোকে ব্যালন ডি’অর না দেওয়াটা অন্যায় ছিল। শুধু এ বছরই নয়, গত বছরও রোনালদো ব্যালন ডি’অর প্রাপ্য ছিলেন।

রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার পর আর বর্ষসেরা হতে পারেননি রোনালদো। গত বছর সেরা হয়েছেন লুকা মডরিচ এবং এ বছর ষষ্ঠবারের মতো সেরা হয়েছেন বার্সেলোনা অধিনায়ক মেসি। আর্জেন্টাইন সেনসেশনের এই স্বীকৃতি অস্বীকার করছেন রোনালদোর এজেন্ট।

মঙ্গলবার মেন্ডিস বলেছেন, ‘গত দুই বছরের মধ্যে অন্তত একটি ব্যালন ডি’অর প্রাপ্য ছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো (রোনালদো)। যদি সে রিয়াল মাদ্রিদে খেলতো তাহলে অবশ্যই সে এটা জিততো।’ মেন্ডিসের বিশ্বাস আগামীবার রাজত্ব উদ্ধার করতে পারবেন রোনালদো, ‘আমার মনে হয় আগামীবার তিনি এটা আবার জিততে পারবেন।’

কেন রোনালদো এ বছর সেরার দাবিদার ছিলেন সেটার স্বপক্ষে যুক্তি দেখালেন মেন্ডিস, ‘আমার কাছে এটা অন্যায় (রোনালদোর ব্যালন ডি’অর না জেতা) মনে হয়েছে। তিন ইউরো নেশনস লিগ জিতেছেন। জুভেন্টাসের হয়ে ডাবলস জিতেছেন। সে একজন চ্যাম্পিয়ন। দেখা যাক ২০২০ সালে কী হয়।’

মেন্ডিস আরো বলেছেন, ‘আমার মতে ক্রিশ্চিয়ানো ইতিহাসের সেরা ফুটবলার। সে আসার আগে পর্তুগাল কিছুই জিততে পারেনি। ক্রিশ্চিয়ানো ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ এবং নেশনস লিগ জিতেছে। তিনি দলে ছিলেন বলেই ২০০৪ সালে ইউরোর ফাইনালে উঠেছিল পর্তুগাল।’

sheikh mujib 2020