advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 59 মিনিট আগে

কয়েকদিন আগের কথা। ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুল মহারণের আগে পেপ গার্দিওলাকে কয়েকবার খোঁচা দিয়েছেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। লিভারপুল কোচকে যেন থামানোই যাচ্ছিল না। অবশেষে জার্মান কোচ নিজ থেকেই থেমেছেন। কয়েকদিন ছিলেন নীরব। আবার নীরাবতাও ভাঙলেন ক্লপ।

guardiola and klopp 2019

এবার অবশ্য গার্দিওলার সমালোচনা করেননি লিভারপুলের প্রধান কোচ। কোনো খোঁচাও দেননি সিটির স্প্যানিশ কোচকে। কাঁটার বদলে এবার ফুল দিলেন তিনি। খোঁচাখুঁচি বাদ দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী কোচের গুণকীর্তনে মেতে উঠলেন ক্লপ। শুক্রবার অল রেডদের জার্মান কোচ দাবি করলেন গার্দিওলা বিশ্বের সেরা কোচ।

২০১৩ সাল থেকে শুরু হয়েছে ক্লপ-গার্দিওলা দ্বৈরথ। গার্দিওলা বায়ার্ন মিউনিখে এবং ক্লপ বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কোচ ছিলেন। দুজনেরই ঠিকানা বদল হয়েছে। জার্মান ফুটবল মাড়িয়ে তারা এখন ইংলিশ ফুটবলের ডাগ আউটে। বিভিন্ন সময় সুযোগ বুঝে একে অন্যকে ধুয়ে দেওয়ার স্বভাবসুলভ বৈশিষ্ট্য হয়ে উঠেছিল তাদের।

অথচ ক্লপ এখন সুর পাল্টালেন। জানালেন গার্দিওলার সঙ্গে কোনো দ্বন্দ্ব নেই তার। শুক্রবার জার্মান কোচ বলেছেন, ‘আমি ভাগ্যবান যে আমার দল তার (গার্দিওলা) দলের সমপর্যায়ে চলে এসেছে। আমি আগেও বলেছি এখনো বলছি। তিনি (গার্দিওলা) বিশ্বের সেরা কোচ। সে তার দলের জন্য যা করেছে তা অবিশ্বাস্য।’

গার্দিওলায় পঞ্চমুখ ক্লপ আরো বলেছেন, ‘সে যেভাবে (ম্যানসিটিকে) খেলায় তা দেখতে সত্যিই আমার ভালো লাগে। পেপ এবং আমি দুজনই ভিন্ন। বলা যায় আমরা দুজন আমাদের দলের আয়না। একজন মানুষ হিসেবে সে আমার চেয়ে ভালো। আমাদের মধ্যে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতা নেই। আমরা একে অন্যকে শ্রদ্ধা করি। দুজনই জিততে চেষ্টা করি। ফুটবলে এটাই স্বাভাবিক।’

sheikh mujib 2020