advertisement
আপনি দেখছেন

সর্বকালের সেরা গোলরক্ষকদের তালিকায় এখনই অ্যালিসন বেকারের নাম লেখাটা একটু বাড়াবাড়িই বটে। তবু পাঁড় অ্যালিসন-ভক্তরা এমনটাই দাবি করেন। তবে অতটা না হলেও এই পর্যন্ত ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক যতটা পারফর্ম করেছেন তাতে বড় একটা স্বীকৃতি তিনি পেয়ে গেছেন।

alisson liverpool 2018 19

বর্তমান বিশ্বের সেরা গোলরক্ষক এখন অ্যালিসন। জিতেছেন গত বছরের সেরা গোলরক্ষকদের সম্ভাব্য সব পুরস্কার। অথচ লিভারপুলের গোলবারের নিচে যখন প্রথমবার দাঁড়িয়েছিলেন এই ব্রাজিলিয়ান, তখন দুঃস্বপ্ন উপহার দিয়েছিল তাকে। অ্যালিসন হজম করেন তিনটি গোল। সঙ্গে চোটের বাধা।

শুরুর ‍দুঃস্বপ্ন ধীরে ধীরে মাটিচাপা দিয়েছেন অ্যালিসন। এখন তিনিই লিভারপুল প্রধান কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের প্রথম পছন্দ। শুধু জার্মান কোচ কেন, বিশ্বের যে কোনো কোচই তাকে একাদশে রাখবেন। অ্যালিসনকে লাইমলাইটের নিচে এনেছেন এ এস রোমার সাবেক কোচ রবার্তো নেগ্রিসলো। তার মতে অ্যালিসন ‘গোলরক্ষকদের মেসি’।

ব্রাজিলিয়ান সেনসেশনকে হাতছাড়া করতে চাননি নেগ্রিসলো। কিন্তু মোটা অংকের অর্থের লোভ সামলাতে পারেনি রোমা। অ্যালিসনকে লিভারপুলের কাছে বিক্রি করে দেয় ইতালিয়ান ক্লাবটি। বিশ্বরেকর্ড গড়ে অ্যানফিল্ডে পা রাখেন অ্যালিসন। লিভারপুল ৮৪ মিলিয়ন ডলার যে জলে ফেলেনি, সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান শেষ প্রহরী।

গড়ে ২৪৪ মিনিট পর গোল হজম করেছেন অ্যালিসন। যা ইংলিশ লিগের ইতিহাসে সেরা পারফরম্যান্স। লিগের ম্যাচে ২৭টি শটের ২৬টিই ঠেকিয়ে দিয়েছেন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা। গোলপোস্টের নিচে এখন পর্যন্ত তার সাফল্যের হার ৮৬.৯৬ শতাংশ। তার পেছনে আছেন ক্যাসপার শিমেইখেল (৭১.৪৩), ডেভিড ডি গিয়া (৬৯.১৫), এডারসন (৬৬.১৫) ও কেপা আরিজাবালাগা (৫৫.৫৬)।

সাবেক গুরু নেগ্রিসলো যথার্থই বলেছেন, ‘অ্যালিসন বেকার গোলরক্ষকদের মেসি!’