advertisement
আপনি দেখছেন

ইনজুরি নিয়ে লম্বা সময়ের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন অধিনায়ক স্ট্রাইকার হ্যারি কেন। চোট মাঠে থাকতে দিল না আক্রমণ ভাগের আরেক সারথি সন হিয়ুং-মিনকেও। মৌসুম শেষ হয়ে গেছে তার। বুধবার রাতে এই যুগলের শূন্যতা হাড়ে হাড়ে টের পেল টটেনহাম হটস্পার। লাইপজিগের বিরুদ্ধে গোলই করতে পারল না উত্তর লন্ডনের ক্লাবটি।

timo werner 2020

উল্টো গোল হজম করে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে হেরে বসল হোসে মরিনহোর দল। কাল রাতে টটেনহামকে তাদেরই মাঠে ১-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে জার্মান ক্লাব লাইপজিগ। হোয়াইট হার্ট লেনে ৫৮ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ম্যাচের একমাত্র ও জয়সূচক গোলটি করেছেন ফরওয়ার্ড টিমো ওয়ার্নার।

এই জয়ে শেষ আটে যাওয়ার দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে গেল লাইপজিগ। তবে হেরে যাওয়া মানেই শেষ নয়। আগামী ১০ মার্চ দ্বিতীয় লেগে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ আছে মরিনহোর টটেনহামের। টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে লাইপজিগের মাঠে অন্তত দুই গোলের ব্যবধানে জিততে হবে স্পার্সদের। গত আসরের ফাইনালিস্টদের বিপদটা বেশি বাড়িয়ে দিয়েছে অতিথিদের অ্যাওয়ে গোল।

লাইপজিগ আরো একটা গোল পেতে পারতো। কিন্তু ম্যাচের দুই মিনিটেই অ্যাঙ্গেলিনোর শট ফিরে আসে টটেনহামের পোস্টে লেগে। শুধু দুর্ভাগ্য নয়, দুর্দান্ত খেলে লাইপজিগের বড় জয় না পাওয়ার পেছনে আছে ফিনিশিং দুর্বলতাও। এদিন প্রথমার্ধে ১৩টি শট নিয়েও লক্ষ্যে মাত্র তিনটি রাখতে পেরেছে জার্মান জায়ান্টরা। সেই হতাশা দ্বিতীয়ার্ধে কাটিয়ে উঠেছে লাইপজিগ।

নিজেদের ডি-বক্সে অস্ট্রিয়ান মিডফিল্ডার কনরাড লাইমারকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড (লাল কার্ড) দেখে মাঠ ছাড়েন স্বাগতিক ডিফেন্ডার বেন ডেভিস। পেনাল্টির সুযোগ পেয়ে তা কাজে লাগাতে ভুল হয়নি ওয়ার্নারের। করেন গোল। টুর্নামেন্টের চলতি আসরে এটা তার চতুর্থ গোল। তবে সবধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে লাইপজিগ ফরওয়ার্ডের এটা মৌসুমের ২৬তম গোল।

শেষ ষোলোতে কাল রাতের একটা ম্যাচ ন্যূনতম ব্যবধানে নিষ্পত্তি হলেও অপর ম্যাচে গোল হয়েছে পাঁচটি। যেখানে স্প্যানিশ ক্লাব ভ্যালেন্সিয়াকে ডেকে এনে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে আটালান্টা। দাপুটে এই জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল প্রায় নিশ্চিত করে ফেলল ইতালিয়ান ক্লাবটি। আশা বাঁচিয়ে রাখতে দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে অলৌকিক কিছু করে দেখাতে হবে ভ্যালেন্সিয়াকে।

sheikh mujib 2020