advertisement
আপনি দেখছেন

ইতালিয়ান সিরি’এ লিগে স্বপ্নের ফর্মে আছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। জুভেন্টাসের জার্সিতে টানা ১১ ম্যাচে গোল করে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন পর্তুগিজ যুবরাজ। অন্যদিকে তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি গোল পাচ্ছেন না টানা চার ম্যাচ ধরে। স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা চাপে আছেন বার্সেলোনা অধিনায়ক।

lionel messicristiano ronaldo split 2019 2020

অবশ্য গোল না পেলেও শেষ তিনটি ম্যাচে সতীর্থদের দিয়ে ছয়টি গোল করিয়েছেন মেসি। তবু গোল মেশিন’ যখন হঠাৎই খরায় ভুগেন তখন এনিয়ে চর্চা হওয়াটা সাধারণ ব্যাপার। তবে এসবে কান দিতে নারাজ আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। সাম্প্রতিক ফর্ম নিয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদোর সঙ্গে নিজের তুলনাতেও যেতে নারাজ মেসি।

ইতালিয়ান ফুটবল ফরওয়ার্ডদের জন্য দুঃস্বপ্নের এক নাম। অতিমাত্রার রক্ষণাত্মক ফুটবলের কারণে ইউরোপের শীর্ষস্থানীয় ঘরোয়া লিগগুলোর মধ্যে সিরি’এতে গোল কম হয়। সেখানে সম্প্রতি গোলবান ছুটিয়েছেন রোনালদো। ইনজুরিতে থেকে সেই যে গোল শুরু করলেন আর থামছেন না জুভেন্টাসের পর্তুগিজ উইঙ্গার। এই মৌসুমে জুভদের হয়ে তার গোল এখন ২৪টি।

বয়স এবং প্রেক্ষাপট বিবেচনায় রোনালদোর এমন ফর্মে অনেকের বিস্ময়ই আকাশ ছুঁয়েছে। তবে চিরশত্রুর আগুনঝরা পারফরম্যান্সে মোটেও অবাক হচ্ছেন না মেসি। বরং ‘সিআর সেভেনে’র প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে উঠলেন বার্সার মহাতারকা। বৃহস্পতিবার স্প্যানিশ প্রচারমাধ্যম মুন্ডো দিপোর্তিভোকে মেসি বলেছেন, ‘সে (রোনালদো নিয়মিত গোল করবে এটাই তো স্বাভাবিক।’

আর্জেন্টিনা অধিনায়ক আরো বলেছেন, ‘সে একজন গোলশিকারী; গোল করতে ভালোবাসে। সে খেললে যে কোনোদিনই গোল করবে। একজন ফরওয়ার্ড হিসেবে তার অনেক দক্ষতা রয়েছে। যার ন্যূনতম হলেও সে প্রয়োগ করে।’ গুণ মেসিরও কম নয়। সম্প্রতি খরায় ধুঁকলেও ইতোমধ্যে লা লিগায় এই মৌসুমে ১৯ ম্যাচে ১৪টি গোল করেছেন মেসি।