advertisement
আপনি দেখছেন

ইনজুরি নিয়ে ছয় মাসের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন উসমান ডেম্বেলে। ফরাসি ফরওয়ার্ডের পরিবর্তিত হিসেবে লেগানেস স্ট্রাইকার মার্টিন ব্রাথওয়েটকে উড়িয়ে এনেছে বার্সেলোনা। দলের সেরা স্ট্রাইকারকে হারিয়ে কঠিন বিপদে পড়েছে লা লিগায় অবনমনের শঙ্কায় থাকা লেগানেস।

bartomeu 2020

নতুন বছরে এনিয়ে দ্বিতীয় স্ট্রাইকার হারাল পুঁচকে দলটি। গেল জানুয়ারিতে তাদের আরেক ফরওয়ার্ড ইউসেফ এন-নেসিরিকে নিয়ে গেছে সেভিয়া। লেগানেসের এখন কোনো মূল স্ট্রাইকার নেই। মৌসুম শেষ হওয়ার আগে নতুন করে কোনো খেলোয়াড়ও কিনতে পারবে না তারা। লিগের আইনের মারপ্যাচে এমনই কোণঠাসা হয়ে পড়েছে লেগানেস।

স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ এবং হতাশ দলটি। বার্সেলোনা নিয়ম মেনে ব্রাথওয়েটের রিলিজ ক্লজ ১৮ মিলিয়ন পরিশোধ করেই লিওনেল মেসির সঙ্গী এনেছে। কাল প্রচারমাধ্যমের সামনে নতুন খেলোয়াড়কে পরিচয়ও করিয়ে দিয়েছে তারা। বার্সার যখন পৌষ মাস চলছে, তখন সর্বনাশ হয়ে গেছে লিগ তালিকার ১৯ নম্বরে থাকা লেগানেসের।

স্প্যানিশ লিগের আইনের ফাঁদে পড়ে এখন কঠিন চাপে পড়েছে লেগানেস। কাজটা যে অন্যায় হয়েছে সেটা বার্সাও বুঝতে পারছে। তবে আইনিভাবে মার্টিনেজকে কিনে নিলেও লেগানেসের দুঃখটা বুঝতে পারছে বার্সা। লেগানেসকে সমবেদনা জানিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে লিগের এই আইনটার সংশোধনেরও দাবি করে বসল কাতালান জায়ান্টরা।

সংবাদ সম্মেলনে বার্সার সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তেমেউ বলেছেন, ‘আমরা নিয়ম মেনে রিলিজ ক্লজ পরিশোধ করে খেলোয়াড় কিনেছি। যদিও আমরা বিশ্বাস করি, এই নিয়মটা পুনর্বিবেচনা করা যেতে পারে। কারণ লেগানেসের প্রতি এটা অন্যায় হয়ে গেছে। তারা এখন আর কোনো খেলোয়াড় কিনতে পারবে না।’

কোপা ডেল রে ও স্প্যানিশ সুপার কাপের শিরোপাস্বপ্ন বার্সার শেষ হয়ে গেছে নতুন বছরের শুরুতেই। বার্সা সভাপতির বিশ্বাস বাকি দুই শিরোপা জিততে অবদান রাখবেন তাদের নতুন ফরওয়ার্ড ব্রাথওয়েট।