advertisement
আপনি দেখছেন

সর্বকালের সেরা ফ্যাশন্যাবল ক্রীড়াবিদের তালিকা তৈরি করলে ডেভিড বেকহ্যামের নামটা ওপরের দিকেই থাকবে। ফুটবলে তো তাকে সার্বজনীন আধুনিক খেলোয়াড় হিসেবে মানা হয়। কয়েক বছর ধরে মাঠ থেকে উঠে গেছেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক। তাই বলে ফুটবল থেকে নিজেকে একেবারে সরিয়ে নেননি বেকহ্যাম।

lionel messi cristiano ronaldo split 2019 2020

ফুটবলের সঙ্গেই আছেন তিনি। শুরু করেননি কোচিং ক্যারিয়ার কিংবা ঝড় তোলেননি মাইক্রোফোনে। বেকহ্যাম নিজেই একটি ক্লাব কিনেছেন। মেজর লিগ সকারের (এমএলএল) দল ইন্টার মিয়ামি ফ্র্যাঞ্চাইজির বড় একটা অংশের মালিক ইংলিশ কিংবদন্তি। এই ক্লাবের প্রতিদ্বন্দ্বী মিনোসোতা ইউনাইটেডের কোচ আদ্রিয়ান হিথের বিশ্বাস একদিন মিয়ামিতে খেলবেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

সোমবার ব্রিটিশ প্রচারমাধ্যম মিররকে আদ্রিয়ান বলেছেন, ‘এটা মার্কিন ফুটবলের জন্য অবিশ্বাস্য হবে। (মেসি-রোনালদোকে আনা) এটা একমাত্র ডেভিড বেকহ্যামের পক্ষেই করা সম্ভব। এটা হয়তো এখনই ঘটবে না। কিন্তু আমি দেখতে পাচ্ছি রোনালদো জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ, ওয়েন রুনি, স্টিভেন জেরার্ড এবং ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের মতো এমএলএসে খেলতে আসবেন।’

মিনোসোতা ইউনাইটেড কোচ আরো বলেছেন, ‘মেসি এবং রোনালদো যদি এমএলএসে আসেন তাহলে অবশ্যই তাদের গন্তব্য হওয়া উচিত লস অ্যাঞ্জেলস এবং মিয়ামি। দুজন খেলোয়াড়কেই আনার পরিকল্পনা আছে বেকহ্যামের। এটা করতে সহায়তা পাবেন তিনি। আমি সত্যিই একদিন তাদের (মেসি-রোনালদো) মিয়ামিতে দেখতে পাচ্ছি।’

মাঠে এবং মাঠের বাইরে মেসি এবং রোনারদো পরষ্পরের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। দুজন একই দলে খেলা মানে সত্যিই অবিশ্বাস্য।