advertisement
আপনি দেখছেন

ম্যাচজুড়ে আক্রমণ করল জুভেন্টাস। কিন্তু গোল নামক সোনার হরিণের দেখা পেলেন না ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, পাওলো দিবালারা। উল্টো হজম করলেন একটি গোল। তাতেই উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগের ম্যাচে অলিম্পিক লিওঁর কাছে হেরে গেল জুভেন্টাস। এই জয়ে শেষ আটে যাওয়ার পথে এগিয়ে গেল ফরাসি জায়ান্টরা।

cristiano ronaldo juventus 2019 20 4

বুধবার রাতে জুভদের ডেকে এনে ১-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে লিওঁ। ইউরোপিয়ান শীর্ষস্থানীয় প্রতিযোগিতার ইতিহাসে তুরিনের বুড়িদের বিরুদ্ধে এটাই প্রথম জয় ফরাসি ক্লাবটির। এই হারে কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার দৌড়ে পিছিয়ে গেল জুভেন্টাস। আগামী ১৭ মার্চ নিজেদের মাঠ তুরিন স্টেডিয়ামে ফিরতে লেগে লিওঁর মুখোমুখি হবেন রোনালদোরা।

লিওঁর মাঠে প্রথমার্ধের পুরোটা সময় হতাশায় কেটেছে জুভেন্টাসের। তুরিনের বুড়িদের হতাশ করেছে আক্রমণ বিভাগ। বিরতির আগে চারটি আক্রমণ করলেও একটি শটও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি রোনালদোরা। উল্টো ম্যাচের ৩১ মিনিটে গোল খেয়ে বসে জুভরা। লিওঁকে এগিয়ে দেন লুকাস তুজা। গোলটার আর শোধ দিতে পারেনি ইতালিয়ান লিগ চ্যাম্পিয়নরা।

ম্যাচের শুরু থেকেই দুর্দান্ত ফুটবলের পসরা সাজায় লিওঁ। এ সময় জুভেন্টাসের রক্ষণে ১০টি শট নেয় তারা। ম্যাচের বয়স আধঘণ্টা পেরিয়ে যাওয়ার পর স্বস্তির গোলটি করেন তুজা; দারুণ এক ভলিতে জুভেন্টাসের জালে বল জড়ান তিনি। গোল হজমের পর সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে মারিসিও সারির দল। কিন্তু ম্যাচে আর ফিরতে পারেনি জুভরা।

দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে মাঠে নামেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার গঞ্জালো হিগুয়েইন। রোনালদো-দিবালার মতো গোল মিসের মহড়ায় যোগ দিলেন তিনিও। ৮৭ মিনিটে লিওঁর জাল অবশ্য কাঁপিয়েছিলেন দিবালা। যদিও অফসাইডের ফাঁদে পা দেওয়ায় তার গোলটা বাতিল হয়ে যায়। এরপরই নিশ্চিত হয়ে যায় জুভেন্টাসের হার। লিঁওর বিরুদ্ধে পঞ্চম ম্যাচে এসে প্রথম হারের মুখ দেখল জুভেন্টাস।

sheikh mujib 2020