advertisement
আপনি দেখছেন

জার্মান ফুটবলে একে অন্যের প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠেছিলেন। ডাগ আউটের রোমাঞ্চকর এই দ্বৈরথ কয়েক মৌসুম ধরে চলছে ইংলিশ ফুটবলে। কখনো কখনো ম্যানচেস্টার সিটি-লিভারপুল ম্যাচের উত্তেজনা ছাপিয়ে গেছে ডাগ আউটে পেপ গার্দিওলা ও ইয়ুর্গেন ক্লপের দ্বৈরথ। এই মৌসুমে এই লড়াইয়ে জয়ী হয়েছেন লিভারপুল কোচ ক্লপ।

liverpool manchester city

একচ্ছত্র আধিপত্যে ইংলিশ লিগের চলতি মৌসুমের শিরোপা নিশ্চিত করেছে অল রেডরা। ক্লপের দারুণ রণকৌশলের ওপর দাঁড়িয়ে ৩০ বছর পর লিগ জিতেছে লিভারপুল। প্রিমিয়ার লিগ যুগে এটাই প্রথম শিরোপা মার্সিসাইড ক্লাবটির। গত বছরেও ক্লপের নেতৃত্ব বড়সড় সাফল্য পেয়েছিল। লিভারপুল জেতে ইউরোপ সেরার মুকুট।

ক্লপের এমন পারফরম্যান্সে দারুণ খুশি প্রতিদ্বন্দ্বী কোচ গার্দিওলা। মেসিদের সাবেক কোচ ভূয়সী প্রশংসা করেছেন জার্মান কোচের। অথচ লিগের এই মৌসুমে প্রথম লেগে মুখোমুখি হওয়ার আগে এই গার্দিওলাই কয়েক দফা খুঁচিয়েছেন ক্লপকে। লিভারপুল কোচও কম যাননি। এই দুজনের শীতল যুদ্ধ সিটি-লিভারপুল ম্যাচের রোমাঞ্চ বাড়িয়ে দিয়েছিল কয়েক গুণ।

বৃহস্পতিবার রাতে আবারো মুখোমুখি হচ্ছে লিভারপুল ও সিটি। এই লড়াইটা দুই দলের জন্যই শুধু নিয়মরক্ষার। লিভারপুল যেমন চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেছে তেমনি রানার্সআপ প্রায় নিশ্চিত হয়েছে সিটির। তাতে অবশ্য মহারণের আকর্ষণে ছিটেফোটা ঘাটতি নেই। উপভোগ্য একটা লড়াই উপহার দেওয়ার অপেক্ষায় আছে এই দুই দল।

pep guardiola manchester city west ham

গত মৌসুমে এক পয়েন্টের জন্য গার্দিওলার কাছে লিগ হেরে গেছেন ক্লপ। স্প্যানিশ কোচকে জবাবটা এই মৌসুমে দিয়েছেন লিভারপুল ম্যানেজার। তার অধীনে লিগের ইতিহাস গড়েছে অল রেডরা। সবচেয়ে কম সময়ে জিতেছে চ্যাম্পিয়নশিপ। অপ্রতিরোধ্য এই লিভারপুলকে যেন থামানোই যাচ্ছিল না। সেই দলটাকেই ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচের আগে গার্ড অব অনার দেবে ম্যানচেস্টার সিটি।

দল হিসেবে দলকে তো বটেই, কোচ হিসেবে ক্লপকেও অনেক সম্মান দিচ্ছেন গার্দিওলা। বুধবার রাতে বার্সেলোনা সাবেক কোচ বলেছেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি তার বিষয়ে ভালোভাবে জানি না। তবে আমরা একবার এক সঙ্গে রাতের খাবার খেয়েছিলাম। (বরুসিয়া) ডর্টমুন্ড ও লিভারপুলকে তিনি যেভাবে খেলিয়েছেন, এই ধরনের ফুটবল বিশ্ব ফুটবলের জন্য অনেক উপকারী। এ জন্যই আমি তাকে শ্রদ্ধা করি।‘

প্রসঙ্গত, ৩১ ম্যাচে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে লিভারপুল। সমান ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট পিছিয়ে দুইয়ে আছে ম্যানচেস্টার সিটি।

sheikh mujib 2020